ভারতের মধ্য প্রদেশে প্রচণ্ড ঝড়ে হিন্দুধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় উৎসব কুম্ভমেলার প্যান্ডেল ভেঙে এক সাধু, নারীসহ সাতজন পুণ্যার্থী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ৮০ জন।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলের দিকে মধ্য প্রদেশের উজ্জয়িনী উজ্জয়িনীর শিপ্রা নদীর তীরে মহাকালেশ্বর মন্দির এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। আহত ব্যক্তিদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান বলেন, মেলায় এবার পাঁচ কোটি পুণ্যার্থীর সমাগম হওয়ার কথা। তিনি নিহত ব্যক্তিদের প্রত্যেকের পরিবারকে দুই লাখ রুপি ও আহত ব্যক্তিদের প্রত্যেকের পরিবারকে ৫০ হাজার রুপি করে আর্থিক অনুদান দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন।
উজ্জয়িনীর পুলিশ প্রধান ভি. মধুকুমার বলেন, উদ্ধারকাজ চলছে। এনডিআরএফ ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা ইতিমধ্যে উদ্ধারকাজ শুরু করে দুর্গত ব্যক্তিদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ শুরু করেছেন।
এ ঘটনায় নিহত ব্যক্তিদের প্রতি শোকপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।
স্থানীয় সাংসদ চিন্তামণি মালব্য বলেছেন, ঝড়-বৃষ্টিতে বেশ কয়েকটি প্যান্ডেল ভেঙে পড়েছে। প্যান্ডেলগুলো নির্মাণের কাজ ফের শুরু হয়েছে।
ভারতের বিভিন্ন স্থানে ১২ বছর পর পর কুম্ভমেলার আয়োজন করা হয়। এবার মধ্য প্রদেশের উজ্জ​য়িনি উজ্জয়িনীর শিপ্রা নদীর তীরে মহাকালেশ্বর মন্দির এলাকায় শুরু হয়েছে এই মেলা। গত শুক্রবার শুরু হওয়া এই মেলা চলবে এক মাস ধরে। গতকাল বিকেলে এই মেলার চত্বরে ঝড়-বৃষ্টি ও বজ্রপাত শুরু হলে পুণ্যার্থীদের জন্য নির্মিত প্যান্ডেল ভেঙে পড়ে। এতে চাপা পড়ে ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন
ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন