default-image

আবারও দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল? দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে নিয়েলসেন, সি-ভোটার, সিসেরো ও নিউজ নেশনের কেন্দ্রফেরত জরিপ তা–ই বলছে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।
এ চার প্রতিষ্ঠানের সমন্বিত জরিপের ফলাফলে দেখা যায়, অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি ৩৮টি আসন পেতে যাচ্ছে। সরকার গড়তে এ আসনই যথেষ্ট।
জরিপের ফলাফল অনুযায়ী আম আদমির প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি ও আকালি পার্টির জোট পেতে পারে ২৯টি আসন। আর ৭০ আসনের এ বিধানসভায় কংগ্রেসের মাত্র তিনটি আসন পাওয়ার কথাও বলছে কেন্দ্রফেরত জরিপ।
তবে কেজরিওয়ালের মূল প্রতিদ্বন্দ্বী কিরণ বেদি এ জরিপ প্রত্যাখ্যান করেছেন। তিনি বলেন, জরিপটি বেলা তিনটা পর্যন্ত নেওয়া ভোটের ওপর নির্ভর করে তৈরি করা হয়েছে। তাঁর দাবি, বেলা তিনটার পর অনেক ভোটার ভোট দিয়েছেন। ফলে ওই জরিপে আসল চিত্র উঠে আসেনি।
আজ সন্ধ্যা ছয়টার দিকে ভোট গ্রহণ শেষ হয়, সকাল আটটায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছিল। আগামী মঙ্গলবার এ নির্বাচনের ফল ঘোষণার কথা রয়েছে।
আজকের নির্বাচনে দিল্লির ১ কোটি ৩০ লাখ ভোটারের ৬৭ শতাংশ ভোটে অংশ নিয়েছেন। এটি দিল্লিতে রেকর্ড। তবে এ সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে জানানো হয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে। এর আগে ২০১৩ সালের বিধানসভা নির্বাচনে ৬৬ শতাংশ ভোট পড়েছিল।

অরবিন্দ কেজরিওয়াল ২০১৩ সালের বিধানসভা নির্বাচনেও মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে সরকার গঠন করেছিলেন। তবে সেবার মাত্র ৪৯ দিনের মাথায় তিনি পদত্যাগ করেছিলেন। তিনি দিল্লির ভোটারদের কাছে তাঁকে আবারও সুযোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

অন্যদিকে কেজরিওয়ালের মূল প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা কিরণ বেদি এবারই প্রথমবারের মতো কোনো নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। তিনি দিল্লিতে আমূল পরিবর্তনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।

বিজ্ঞাপন
ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন