কোচবিহারে লুঙ্গি পরে মিছিল করবে তৃণমূল

বিজ্ঞাপন
default-image

ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) ও জাতীয় নাগরিক নিবন্ধনের (এনআরসি) প্রতিবাদে আজ সোমবার পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহারে লুঙ্গি পরে মিছিল করার ডাক দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। আন্দোলনকে ঘিরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ‘পোশাক দেখে মানুষ চেনা যায়’ মন্তব্যের প্রতিবাদে এ মিছিল করার উদ্যোগ নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতাসীন দলটি।

কোচবিহার জেলার দিনহাটা শহরে স্থানীয় তৃণমূলের বিধায়ক উদয়ন গুহ লুঙ্গি পরে মিছিল করার আহ্বান জানিয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তিনি লিখেছেন, তিনি নিজে লুঙ্গি পরেন না। কিন্তু আজ তিনি লুঙ্গি পরে প্রতিবাদ মিছিলে হাঁটবেন।

গতকাল রোববার ফেসবুকে উদয়ন গুহ লিখেছেন, ‘সিএএ ও এনআরসি-বিরোধী আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রীর “পোশাক দেখে মানুষ চেনা যায়” মন্তব্যের প্রতিবাদে তৃণমূল আয়োজিত প্রতিবাদ মিছিলে আজ আসুন লুঙ্গি পরে, হাঁটুন এই মিছিলে।’ তিনি আরও বলেছেন, ‘সিএএ এবং এনআরসির প্রতিবাদ করতে গিয়ে কে কী পোশাক পরছেন সেটা প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী খুঁজে দেখছেন। সেটা দেখেই তাঁরা বুঝে যাচ্ছেন অশান্তির সঙ্গে কারা যুক্ত রয়েছেন। পোশাক বা ধর্ম নিয়ে কখনো মানুষ বিচার করতে পারে না। এর প্রতিবাদেই চলমান আন্দোলনে এবার দিনহাটা শহরে তৃণমূল আয়োজিত প্রতিবাদ মিছিলে আজ সোমবার লুঙ্গি পরে পথে হাঁটবেন মানুষ।’

এদিকে দিনহাটায় এই অভিনব মিছিলকে কটাক্ষ করে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ বারাসাতের একটি সভায় যোগ দিয়ে বলেছেন, ‘যদি লুঙ্গি বাহিনী রাস্তায় নামে, এমন দাওয়াই দেব, লুঙ্গি এখানে রেখে বাংলাদেশে চলে যাবে।’

কোচবিহারের বিজেপির জেলা সভাপতি মালতী রাভা বলেছেন, ‘তৃণমূল নীতি-আদর্শহীন একটি দল। তাই সেই দলের বিধায়ক বা কর্মীরা লুঙ্গি পরে না সাদা শাড়ি পরে মিছিল করবেন, সেটা তাদের নিজস্ব ব্যাপার। বিজেপি ভারতীয় কৃষ্টি ও সংস্কৃতি আঁকড়ে ধরে চলে।’ তিনি জানান, বিজেপি সেই সংস্কৃতির বার্তা দিতে সংশোধিত আইনকে সমর্থন দিয়ে কোচবিহার শহরে মহা মিছিলের ডাক দিয়েছে। সেই মিছিলেই তুলে ধরা হবে ভারতের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন