বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ কিনতে চুক্তি আগেই করেছিল ভারত। পরিশোধ করা হয়েছে চুক্তির আংশিক অর্থ। সে ধারাবাহিকতায় ডিসেম্বরেই প্রথম চালানে এস-৪০০-এর দুটি ইউনিট ভারতে পৌঁছানোর কথা রয়েছে বলে জানিয়েছেন মস্কোতে নিযুক্ত ভারতীয় কূটনীতিকেরা। আগামী মাসের ৬ তারিখে ভারত সফরের কথা রয়েছে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনেরও।

ভারতীয় কূটনীতিকেরা বলছেন, ভারতের লাদাখ ও অরুণাচল প্রদেশে চীনের সঙ্গে সীমান্তের কাছে এস-৪০০-এর দুটি ইউনিট মোতায়েন করা হবে। আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থাটি পরিচালনা করতে এর মধ্যেই রাশিয়ায় প্রশিক্ষণ নিয়েছেন ভারত সেনাবাহিনীর দুটি দল।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, এস-৪০০ শত্রুপক্ষের সীমানায় ৪০০ কিলোমিটার অভ্যন্তরে হামলা চালাতে পারে। এস-৪০০ মোতায়েনের ফলে চীনা সেনাবাহিনীর ক্ষেপণাস্ত্র এবং বিমানবাহিনীকে জবাব দেওয়ার সক্ষমতা পেতে যাচ্ছে নরেন্দ্র মোদির সরকার। লাদাখে মোতায়েন করা ইউনিটটি সেনাবাহিনীর দুটি ফ্রন্টের আওতায় থাকবে। ভারতকে লক্ষ্য করে চালানো হামলা প্রতিহত করতে নজরদারি করবে ইউনিটটি।

সীমান্ত নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে দীর্ঘদিন ভারত ও চীনের মধ্যে উত্তেজনা চলে আসছে। গত বছরের ১৫ জুন লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় চীনা সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ভারতের কয়েকজন সেনাসদস্য নিহত হন। এর পর থেকেই এ সীমান্তে সেনাবাহিনীকে শক্তিশালী করতে নানা পদক্ষেপ নিয়েছে ভারত।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন