default-image

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে কলকাতায় এসে বলিউড অভিনেত্রী ও সাংসদ জয়া বচ্চন বলেছেন, ‘বাংলায় আজ একনায়কত্বের বিরুদ্ধে লড়ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই লড়াইয়ে আমাদের যোগ দিয়ে মমতাকে জিতিয়ে আনতে হবে।’

আজ সোমবার বিকেলে টালিগঞ্জ আসনে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী অরূপ বিশ্বাসের পক্ষে আয়োজিত একটি রোড শোতে অংশ নেন জয়া। এর আগে তৃণমূলের রাজ্য দপ্তরে এক সাংবাদিক সম্মেলনে যোগ দেন তিনি। এই সময় সমাজবাদী পার্টির সাংসদ (রাজ্যসভার সদস্য) ও কলকাতার মেয়ে জয়া বলেন, ‘আমি ছবি করতে আসিনি। এসেছি বাংলার গণতন্ত্র রক্ষার আন্দোলনের প্রধান যোদ্ধা ও তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিতে।’

এই সময় জয়া আরও বলেন, ‘বাংলায় আজ একনায়কত্বের বিরুদ্ধে লড়ছেন মমতা। সেই লড়াইয়ে আমাদের যোগ দিয়ে মমতাকে জিতিয়ে আনতে হবে। আমি বরাবর মমতার লড়াইকে সম্মান জানিয়ে এসেছি। আমি মনে করি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হলে পশ্চিমবঙ্গ আরও উন্নতির শিখরে পৌঁছাবে।’

বিজ্ঞাপন

তবে তৃণমূলের পক্ষ নিয়ে জয়া বচ্চনের নির্বাচনী প্রচারে অংশ নেওয়ার সমালোচনা করেন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেছেন, জয়া বচ্চন কলকাতায় এসে তৃণমলের প্রার্থীদের পক্ষে প্রচারে যোগ দেওয়ায় মমতার কোনো লাভ হবে না। এর আগে তিনি (জয়া) কী করেছেন এই কলকাতার জন্য?
জয়া যেই টালিগঞ্জ আসনে রোড শোতে অংশ নেন, সেখানকার বিজেপি প্রার্থী জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ও সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। আজ বাবুল সুপ্রিয়র পক্ষে প্রচারে এসেছিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা। জয়ার মতো তিনিও রোড শোতে অংশ নেন। এই সময় নাড্ডা বলেন, নন্দীগ্রাম আসনে হারছেন মমতা। এবার বাংলায় পরিবর্তন হবেই। মমতা যাবেন, আসবে বিজেপি। এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা।

ভোট পেছানোর আশঙ্কা মমতার

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় আট দফার মধ্যে দুই দফার ভোট গ্রহণ এরই মধ্যে শেষ হয়েছে। মঙ্গলবার হাওড়া, হুগলি ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার ৩১ আসনে ভোট হবে। আট দফার ভোট শেষে আগামী ২ মে ঘোষিত হবে চূড়ান্ত ফল।

দুই দফার ভোট হলেও এখন ভারতে করোনা সংক্রমণ রেকর্ড ছাড়াতে শুরু করেছে। প্রতিদিনই বাড়ছে কোভিড–১৯ রোগী। পশ্চিমবঙ্গসহ পুরো ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ দ্রুত আছড়ে পড়ায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এই পরিস্থিতিতে নির্বাচন আয়োজন নিয়েও দেখা দিয়েছে সংশয়। আজ হুগলির চুঁচুড়ায় এক নির্বাচনী জনসভায় তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, করোনা হয়েছে বলে নির্বাচন বন্ধ করা চলবে না। নির্বাচন যথা সময়ে করতে হবে।

default-image

এই সময় মমতা প্রশ্ন রাখেন, ‘এই রাজ্যে আট দফায় নির্বাচন আয়োজন করা হলো কেন? ভোট যখন শুরু হয়েছে, তখন শেষ করতেই হবে। এই নির্বাচন তিন–চার দফায় করা হলে আমাদের এই পরিস্থিতির মুখে পড়তে হতো না। অথচ ২৩৪ আসনের তামিলনাড়ু বিধানসভার নির্বাচন এক দিনে করা হচ্ছে।’
মমতা এই জনসভায় দিল্লি জয়ের স্বপ্নের কথা জানিয়ে বলেন, ‘এক পায়ে আমরা বাংলা জয় করব। আরেক পায়ে আমাদের দিল্লি জয় করতে হবে। সামনে আমাদের দিন। বিজেপিকে এই রাজ্য থেকে বিদায় দিয়ে আমাদের আবারও বাংলায় ক্ষমতায় আসতে হবে। বিজেপিকে মানুষ পরিত্যাগ করেছে। এই বাংলার মানুষ ধর্মান্ধ দলকে ভোট দেবে না।’

বিজ্ঞাপন
ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন