কিন্তু হঠাৎ কেন আজ পদত্যাগ করলেন বিপ্লব দেব? রাজনৈতিক মহলের খবর, বিপ্লব মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর বিভিন্ন সময় বেফাঁস মন্তব্য করে দলের বিরাগভাজন হন। দল এটা চাইছিল না। এদিকে রাজ্য বিধানসভার নির্বাচন এসে পড়ায় দল মনে করছে, বিপ্লবের বিরুদ্ধে প্রতিষ্ঠানবিরোধী হাওয়া জোরদার হলে তাঁর মুখ্যমন্ত্রী হওয়া সম্ভব হবে না। বরং তাতে ক্ষতি হবে বিজেপিরই। তাই বিজেপি চাইছে না বিপ্লবকে আগামী বছরের রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে সামনে রেখে নির্বাচনে লড়তে। এতে কার্যত ক্ষতির মুখে পড়বে বিজেপি। তাই নির্বাচনের আগেই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের নির্দেশে সরিয়ে দেওয়া হলো বিপ্লব দেবকে।

বিপ্লবের পর কে হবেন এই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী, তা নিয়ে রাজ্য বিজেপিতে জল্পনা শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে এই পদে নিয়োগের জন্য দুটি নাম উঠে এসেছে। প্রথমজন হলেন বর্তমানে ত্রিপুরার উপমুখ্যমন্ত্রী যিষ্ণু দেববর্মা। আর দ্বিতীয়জন বিজেপির ত্রিপুরা রাজ্য সম্পাদক মানিক সাহা। আজই বিজেপির বিধায়কমণ্ডলীর সভা ডাকা হয়েছে। সেখানেই চূড়ান্ত হবে কে হচ্ছেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন