বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অতীতে আশিসকে ত্রিপুরার বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের কড়া সমালোচনা করতেও দেখা গেছে। অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশংসা করতে দেখা গেছে তাঁকে।

গতকাল আশিস ‘প্রায়শ্চিত্ত’ করতে তাঁর মাথা ন্যাড়া করেন। তিনি বলেন, ‘রাজ্যে বিজেপি সরকারের অপশাসনের জেরে প্রায়শ্চিত্ত করতে আমি আমার মাথা ন্যাড়া করেছি। আমি বিজেপি থেকে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমার পরবর্তী পদক্ষেপ কী হবে, তা সময়ই বলে দেবে।’

আশিস বলেন, ‘বিজেপির নেতৃত্বাধীন সরকারের অধীন যে বিশৃঙ্খলা ও অপশাসন ত্রিপুরার মানুষ দেখেছে, তা আমাকে নাড়া দিয়েছে। ফলে আমি দুই বছর ধরে এ অপকর্মের সমালোচনা করেছি। দল ও রাজনীতির বাইরে গিয়ে মানুষের জন্য কাজ করে আসছি।’

গতকাল শুধু মাথা ন্যাড়া করেই ক্ষান্ত হননি আশিস। তাঁকে গতকাল কলকাতার কালীঘাট মন্দিরে ধর্মীর আচার পালন করতেও দেখা যায়। কালীঘাট মন্দির থেকে মমতার বাড়ির দূরত্ব খুব একটা বেশি নয়।

রাজনৈতিক অঙ্গনে গুঞ্জন উঠেছে, আশিস শিগগির তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিচ্ছেন। মমতার প্রশংসার পাশাপাশি তাঁর গতকালের কার্যক্রমে এ গুঞ্জন আরও জোরালো হয়েছে।

সম্প্রতি আশিস পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে প্রশংসায় ভাসান। দিন কয়েক আগেই কলকাতার ভবানীপুর বিধানসভা আসনের উপনির্বাচনে বিজেপির প্রার্থীকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে দেন মমতা। মমতার জয়ে আশিসকে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে দেখা যায়। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মমতাকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চান দেশের অনেক মানুষ।

গতকাল কলকাতায় সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপচারিতায় আশিস ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমালোচনা করেন।

আশিসের এমন কর্মকাণ্ডে বেশ চটেছে বিজেপি। শৃঙ্খলাভঙ্গের জন্য তাঁর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে দলটির একটি সূত্র জানিয়েছে।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন