default-image

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, যাঁরা দল ছেড়ে যেতে চান, তাঁরা দেরি করবেন না, তাড়াতাড়ি যান, ট্রেন ছেড়ে দেবে। সোমবার দুপুরে হুগলির পুরশুড়ায় তৃণমূল কংগ্রেস আয়োজিত এক নির্বাচনী জনসভায় এসব কথা বলেন তিনি।

মমতা বলেন, ‘একবার দল ছাড়লে আর ফিরিয়ে নেওয়া হবে না। দলের চোরেরা পালিয়ে গেছে। আর যাঁরা যেতে চান, তাঁরা দেরি করবেন না, এখনই চলে যান। চোরেরা জানে, আসন্ন নির্বাচনে আর তাঁদের মনোনয়ন দেওয়া হবে না; সেটা বুঝেই পালাতে শুরু করেছে। পালান। দলও চায় এরা দল থেকে পালিয়ে যাক। কারণ, তৃণমূলে আর ঠাঁই হবে না, সেটা ওরা বুঝতে পেরেছে। তাই বলছি, লেজ গুটিয়ে পালাও। লেজে না হয় লঙ্কাকাণ্ডের মতো একটা কিছু লাগিয়ে দ্রুত পালাও।’

বিজ্ঞাপন

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলেন, ‘সিপিএম ও কংগ্রেস এই এই বাংলায় বিজেপিকে এনেছে। তাইতো ওরা জগাই-মাধাই-গদাই। এই জগাই-মাধাই-গদাইদের ঠাঁই হবে না এই বাংলায়। আর সিপিএম তো ৩৪ বছর অত্যাচার করেছে এই বাংলার মানুষের ওপর। তপসিলি, দলিত ও আদিবাসীদের জন্য কিছুই করেনি। আমরা করেছি। আমরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ওদের উন্নয়নের জন্য। কারণ, তৃণমূল প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে জানে। জানে এই বাংলার মানুষও।’

মমতা বলেন, ‘এবারও বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি টাকার থলি নিয়ে আসবে আপনাদের কাছে। ওদের টাকা নেবেন না। আর যদি নিতেই হয়, তবে নেবেন, কিন্তু একটি ভোটও দেবেন না ওদের। ওদের টাকা তো বাংলার মানুষের কষ্টার্জিত টাকা। তাই ওদের টাকা প্রয়োজনে নেবেন কিন্তু একটি ভোটও দেবেন না। কারণ ওদের দল বহিরাগতদের দল। ওদের ঠাঁই নেই এই বাংলায়। আমাদের দল এই বাংলার। মনে রাখবেন, ওদের এবার একটিও ভোট নয়। তাই বলছি, এবার আর তাদের ঢুকতে দেওয়া হবে না এই বাংলায়। তাদের প্রতিহত করবে বাংলার মানুষ। আমি আজও বলছি, আমি আপনাদের পাহারাদার। আমিই আপনাদেরর রক্ষা করব। রেশন আর জুন পর্যন্ত নয়। বিনা মূল্যে আপনাদের এই রেশন চলবে আগামী দিনেও। তৃণমূল মিথ্যে প্রতিশ্রুতি দেয় না। বাংলার উন্নয়নের জন্য তৃণমূল কাজ করে যাচ্ছে।’

মমতা আরও বলেন, ‘যাঁরা লাইন দিয়ে আছেন, তাঁরা ওদের পায়ে গিয়ে পড়েন। বিজেপি তো একটি ওয়াশিং মেশিন। চোরগুলো বিজেপিতে গিয়ে সাদা হয়ে যাচ্ছে। ওরা কালোটাকাকে সাদা করছে। নেতাজিকে ওরা অপমান করেছে। ২৩ জানুয়ারি ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে বাংলাকে অপমান করেছে ওরা। ওরা কবিগুরুকে অপমান করেছে, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরকে অপমান করেছে। ভিক্টোরিয়ার ঘটনাও ছিল ওদের পূর্বপরিকল্পিত। আজ ওরা বাংলার মেয়েদের ধর্ষণের হুমকি দিচ্ছে। এটা মানবে না বাংলার মানুষ। এর জবাব দেবে। বিজেপি তো একটি ভুয়া দল। তাই বিজেপিকে বিশ্বাস করবেন না। বিশ্বাস করবেন না ওদের ভিডিওকে। সব ভুয়া। বানানো। ওদের কথা আর ভিডিওকে বিশ্বাস করবেন না। ওরা মিথ্যাকে সত্য বানাতে চায়।’

আগামী এপ্রিলে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার নির্বাচন হওয়ার কথা। সেই নির্বাচন সামনে রেখে মমতার তৃণমূল থেকে অনেকেই বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন।

বিজ্ঞাপন
ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন