default-image

সকাল আটটা থেকে ভোট গণনা চলছে পশ্চিমবঙ্গের ২৯২ আসনের। তবে এখনো কোনো আসনের চূড়ান্ত ফল ঘোষণা হয়নি। চলছে গণনা। সর্বশেষ গণনায় দেখা যাচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গের নন্দীগ্রাম আসনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা পিছিয়ে রয়েছেন। এগিয়ে রয়েছেন তাঁরই প্রতিপক্ষ শুভেন্দু অধিকারী। তবে এই নির্বাচনের এখন পর্যন্ত যে চিত্র ফুটে উঠেছে, তা বাম-কংগ্রেস দলের জন্য এক মহাবিপৎসংকেত দিচ্ছে।

এখন পর্যন্ত এই পশ্চিমবঙ্গের ২৯২টি আসনের মধ্যে মাত্র দুটি আসনে এগিয়ে রয়েছে বাম-কংগ্রেস জোট। অথচ সর্বশেষ ২০১৬ সালের নির্বাচনেও এই রাজ্যে মমতার জোয়ারের সময় ৪৪টি আসনে কংগ্রেস এবং ৩২টি আসনে বাম দল জিতেছিল। এবার এই দুই দল একজোট হয়ে আইএসএফকে সঙ্গে নিয়ে সংযুক্ত মোর্চা গঠন করলেও সেই সংযুক্ত মোর্চা মাত্র দুটি আসনে এগিয়ে রয়েছে। সেই আসন শেষ পর্যন্ত ধরে রাখতে পারবে কি না, সেই প্রশ্নও উঠে এসেছে রাজ্যের রাজনীতিতে।

কেন এমনটা এবার হলো, তা নিয়ে এখন বিশ্লেষণ শুরু হয়েছে কংগ্রেস-বাম দলের। অনেকেই বলছেন, বিজেপির এই সাম্প্রদায়িকতা বিভাজনের প্রচেষ্টা মেনে নিতে পারেনি পশ্চিমবঙ্গের অনেকেই। তাই এবার বিজেপিকে হঠাতে এই রাজ্যের ধর্মনিরপেক্ষ মানুষ বাধ্য হয়েছেন তৃণমূলকে ভোট দিতে। নয়তো কংগ্রেস-বাম দল এত কম আসনে এগিয়ে থাকত না। এ দুই দলের সমর্থকেরা মনে করেছেন, বাম-কংগ্রেসকে ভোট দিলে আখেরে লাভ হবে বিজেপির। তাই তারা চেয়েছে তৃণমূলের হাত শক্তিশালী করতে। আর এরই ফল ফুটে উঠেছে এবারের ভোটের ফলাফলের গণনার চিত্রে।

আজ রোববার ভারতীয় সময় সকাল আটটা থেকেই শুরু হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার ২৯২টি আসনের ভোট গণনা। ইতিমধ্যে ভোট গণনার প্রায় পাঁচ ঘণ্টা পার হলেও দেখা যাচ্ছে ফলাফলের গতি এখন পর্যন্ত ঝুঁকে আছে তৃণমূলের দিকেই।

বিজ্ঞাপন

ইতিমধ্যে চার থেকে ছয় রাউন্ডের গণনা শেষ হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, তৃণমূলের সঙ্গে লড়াই নয়, এমনিতেই পিছিয়ে পড়ছে বিজেপি।

এখন নন্দীগ্রামের সর্বশেষ খবরে জানা যাচ্ছে, মমতার থেকে এগিয়ে রয়েছেন বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। ষষ্ঠ রাউন্ড শেষে মমতার চেয়ে ৯ হাজার ৯৯৮ ভোটে এগিয়ে রয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী।

আজ ভারতীয় সময় বেলা একটায় এবিপি আনন্দ তাদের সর্বশেষ বুলেটিনে বলেছে, তৃণমূল এগিয়ে আছে ২০৮টি আসনে। আর বিজেপি এগিয়ে আছে ৮০টি আসনে এবং কংগ্রেস-বাম দল ও আইএসএফের গড়া সংযুক্ত মোর্চা এগিয়ে আছে ২টি আসনে।

অন্যদিকে, রিপাবলিক বাংলা তাদের সর্বশেষ বুলেটিনে বলেছে, তৃণমূল এগিয়ে রয়েছে ১৮৩টি আসনে। আর বিজেপি এগিয়ে রয়েছে ১০৩টি আসনে। সংযুক্ত মোর্চা এগিয়ে রয়েছে ২টি আসনে। আর টিভি নিউজ-১৮ বলেছে, তৃণমূল এগিয়ে রয়েছে ২০৪টি আসনে। বিজেপি ৮৬টি আসনে আর সংযুক্ত মোর্চা এগিয়ে আছে ২টি আসনে।

বিধানসভার মোট আসন ২৯৪টি থাকলেও নির্বাচনের মাঝে দুই প্রার্থীর মৃত্যু হওয়ায় দুটি আসনের নির্বাচন স্থগিত হয়। ফলে, আজ ২৯২টি আসনের ভোট গণনা চলছে কড়া নিরাপত্তার মধ্যেই।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন