বিজ্ঞাপন

আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, এখন থেকে হাটবাজার খোলা রাখা যাবে স্থানীয় সময় সকাল ৭টা থেকে ১০টা এবং বেলা ৩টা থেকে ৫টা পর্যন্ত। তবে চালু থাকবে হোম ডেলিভারি, অনলাইন সেবা, অত্যাবশ্যকীয় পণ্য সেবা। খোলা থাকবে ওষুধ এবং চিকিৎসাসামগ্রীর দোকান। অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকবে বিপণিকেন্দ্র, রেস্তোরাঁ, বিউটি পারলার, জিম, পানশালা, সুইমিং পুল, স্পা, স্পোর্টস কমপ্লেক্স, সিনেমা হল। এ ছাড়া সামাজিক, সাংস্কৃতিক, শিক্ষা ও বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান এবং কোনো জমায়েত করা যাবে না। কোনো ধর্মীয় জমায়েত করা যাবে না।

রাজ্য সরকারের লকডাউনের ঘোষণার মধ্য দিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সব ধরনের ট্রেন, মেট্রোরেল। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সব ধরনের ফেরি সেবা। তবে মিষ্টির দোকান খোলা থাকবে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। স্কুল, কলেজসহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বিয়ের অনুষ্ঠানে ৫০ জনের বেশি উপস্থিত হতে পারবে না। ব্যাংক ও এটিএম খোলা থাকবে সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত। মৃতদের শেষকৃত্যে ২০ জনের বেশি যোগ দিতে পারবেন না।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন