default-image

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্রায় ২৫ শতাংশ প্রার্থীর বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা আছে। নির্বাচন নিয়ে কাজ করা দুই গবেষণা প্রতিষ্ঠান এ তথ্য জানিয়েছে।

অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্রেটিক রিফরমস (এডিআর) এবং ওয়েস্টবেঙ্গল ইলেকশন ওয়াচ নামের দুটি সংস্থার যৌথ সমীক্ষা আজ রোববার সংবাদ মাধ্যমে এসেছে।

পশ্চিমবঙ্গে ২৯৪ আসনের বিধানসভার নির্বাচন চলছে। আট দফায় অনুষ্ঠেয় এ নির্বাচনের ছয় দফার ভোট নেওয়া শেষ হয়েছে ২২ এপ্রিল। এখন বাকি রয়েছে দুই দফায় ৭১ আসনের নির্বাচন। কাল সোমবার ২৬ এপ্রিল নির্বাচন হবে ৩৬টি আসনে। আর শেষ দফার নির্বাচন হবে ৩৫টি আসনে ২৯ এপ্রিল । ফলাফল ঘোষণা একযোগে ২ মে।

এবারের এই ২৯৪ আসনে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মিলে লড়ছেন ২ হাজার ১৩২ প্রার্থী। তাঁদের মধ্যে দুজন প্রার্থীর মনোনয়নপত্রের সঙ্গে দেওয়া হলফনামা অস্পস্ট রয়েছে। ফলে অংশ গ্রহণকারী ২ হাজার ১৩০ প্রার্থীর মধ্যে এখন বিভিন্ন ফৌজদারি মামলা ঝুলছে ৫২৮ জনের বিরুদ্ধে। এর মধ্যে আবার খুন, ধর্ষণ, নারী নির্যাতনসহ গুরুতর অপরাধের মামলা রয়েছে ৪৩১ জনের বিরুদ্ধে। মূলত মনোনয়নপত্রের সঙ্গে দেওয়া প্রার্থীর হলফনামা পর্যালোচনা করে এই রিপোর্ট তৈরি করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সমীক্ষায় বলা হয়েছে, ফৌজদারি মামলার নিরিখে প্রথম স্থানে রয়েছে বিজেপি। তাঁদের ২৯৩ প্রার্থীর মধ্যে ১৬৮ জনের বিরুদ্ধে ঝুলছে এই মামলা। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। তাঁদের ২৯০ জন প্রার্থীর মধ্যে ১১৮ জনের বিরুদ্ধে রয়েছে এ মামলা। এ ছাড়া সিপিএমের ১৩৯ প্রার্থীর মধ্যে ৮১ জন এবং কংগ্রেসের ৯২ প্রার্থীর মধ্যে ৩৫ জনের বিরুদ্ধেও ঝুলছে এই ফৌজদারি মামলা। হলফনামায় ৩৯ প্রার্থী জানিয়েছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে ঝুলছে খুনের মামলা। ১১৩ জনের বিরুদ্ধে ঝুলছে নারী নির্যাতনের বিভিন্ন মামলা । আবার চারজনের বিরুদ্ধে রয়েছে ধর্ষণের মামলা। যদিও দেখা গেছে, সর্বশেষ ২০১৬ সালের নির্বাচনের চেয়ে এ বছর এই ফৌজদারি মামলার সংখ্যা বেশি।

সর্বশেষ ২০১৬ সালে ১ হাজার ৯৬০ প্রার্থীর মধ্যে ৩৫৪ জনের বিরুদ্ধে ছিল এই ফৌজদারি মামলা। এর মধ্যে গুরুতর ফৌজদারি মামলা ছিল ২৯৪ জনের বিরুদ্ধে। আর এবার গুরুতর অভিযোগের মামলা রয়েছে বিজেপির ১৪৪ জন, সিপিএমের ১৩৯, তৃণমূলের ৯৮ জনের বিরুদ্ধে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, এবার নারী প্রার্থীর সংখ্যা ২৪০। ২০১৬ সালের নির্বাচনে এই সংখ্যা ছিল ১৯৮।

সমীক্ষা রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, সম্পদের নিরিখে এবার প্রার্থীদের মধ্যে ৩৯৪ জন কোটিপতি। গত বিধানসভা নির্বাচনে এ সংখ্যা ছিল ২৪৪। সবচেয়ে বেশি কোটিপতির সংখ্যা তৃণমূলে। এ সংখ্যা ১৭৬। দ্বিতীয় স্থানে বিজেপি, সংখ্যা ১০২। আর ৫ কোটি রুপির বেশি সম্পদ রয়েছে, এমন প্রার্থীর সংখ্যা ৭৪। আবার ৮ প্রার্থীর কোনো সম্পদ নেই। ৩ প্রার্থী জানিয়েছেন, তাঁদের প্রত্যেকের ৫০০ রুপির সম্পদ রয়েছে।

সমীক্ষা রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, ৯৯৬ প্রার্থী পঞ্চম থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পাস। স্নাতক শ্রেণি ও তার বেশি শিক্ষাগত যোগ্যতা রয়েছে ১ হাজার ৭২ জনের। আবার ২৭ প্রার্থী শুধু স্বাক্ষর করতে পারেন। ১০ প্রার্থী নিরক্ষর।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন