default-image

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার নির্বাচনে পঞ্চম দফায় ভোট গ্রহণের আগে এই রাজ্যে এলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। তিনি বিজেপির বাংলা ভাগের চক্রান্তের ষড়যন্ত্র রোধ করতে এবং তৃণমূলের অপশাসনের হাত থেকে রক্ষা করতে বাংলার সব মানুষকে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলনে শরিক হওয়ার ডাক দেন। রাহুল গান্ধী বলেন, ‘আমাদের এখন বাংলার ভবিষ্যৎকে রক্ষা করতে হবে। তৃণমূলের অপশাসন থেকে বাংলাকে রক্ষা করতে হবে। বিজেপির বাংলা ভাগের ষড়যন্ত্র রুখতে হবে।’

উত্তর দিনাজপুরের গোয়ালপোখরে আয়োজিত কংগ্রেস প্রার্থীদের সমর্থনে আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় যোগ দিয়ে রাহুল গান্ধী এসব কথা বলেন। কংগ্রেস এখন মূলত মুর্শিদাবাদ, মালদহ, উত্তর দিনাজপুর এবং নদীয়া জেলায় মোটামুটি শক্তিশালী। সেই দিকে লক্ষ্য রেখে আজ রাহুল গান্ধী উত্তরবঙ্গে পা রাখলেন।

যদিও পূর্বে সম্পন্ন হওয়া ৪ দফার নির্বাচনে রাহুল গান্ধী কেরালার নির্বাচনের কারণে আসতে পারেননি। কারণ রাহুল গান্ধী এখন কেরালার একটি আসনের সাংসদ। এবার পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে কেরালা বিধানসভার ১৪০টি আসনেও নির্বাচন হয়েছে। গত ৬ এপ্রিল এক দিনে কেরালার ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়। আর পশ্চিমবঙ্গের ২৯৪টি আসনে ভোট হচ্ছে ৮ দফায়।

গোয়ালপোখরে নির্বাচনী জনসভায় রাহুল বলেন, বিজেপির বাংলা ভাগের চক্রান্ত আর তৃণমূলের হাত থেকে বাংলাকে বাঁচাতে তিনি আজ পশ্চিমবঙ্গে এসেছেন। নরেন্দ্র মোদি বলেন, কংগ্রেসমুক্ত ভারত গড়ার কথা। কিন্তু তৃণমূলমুক্ত বাংলা গড়ার কথা তো বলেন না। মোদি জানেন রাহুল গান্ধী কাউকে ভয় করেন না বরং মোদি ভয় করেন রাহুল গান্ধীকে।  রাহুল গান্ধী প্রশ্ন করেন, ‘কী করেছেন মোদি বাংলার জন্য। কী করেছেন মমতা বাংলার জন্য। এখানে শিল্প হয়নি। বেকার সমস্যার সমাধান হয়নি। চাকরি হয়নি। সন্ত্রাস বেড়েছে। মানুষের জীবনের গ্যারান্টি নেই। নারীদের সুরক্ষার গ্যারান্টি নেই। বরং মোদি সরকার আর মমতা সরকার বাংলার অর্থনৈতিক মেরুদণ্ড ভেঙে দিয়েছে।’

বিজ্ঞাপন

করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় মোদি সরকারে সমালোচনা করে এই কংগ্রেস নেতা বলেন, আজ করোনার প্রাদুর্ভাবে দেশবাসী শঙ্কিত হয়ে পড়েছে। করোনার টিকার অভাব দেখা দিয়েছে। করোনা নির্মূলে মোদির কোনো দূরদর্শী পরিকল্পনা নেই। বরং করোনা এলে মোদি বলেন, ‘তালি বাজাও , দীপ জ্বালাও , করোনা চলে যাবে। মোদি কারোর সঙ্গে আলাপ না করে দিয়ে দিচ্ছে লকডাউন। এটাই মোদির অদূরদর্শিতার ফসল। অথচ দেশে এখন নিত্যদিন বেড়ে যাচ্ছে মৃত্যু সংখ্যা ও সংক্রমণ সংখ্যা।’
রাহুল বলেন, নোট বাতিল করে আর জিএসটি চালু করে ফায়দা লুটতে পারেনি মোদি। আজও ছোট ছোট দোকানদারেরা বুঝতে পারেনি জিএসটি কী?

এই বাংলাকে বিজেপি এবং তৃণমূলের হাত থেকে বাঁচাতে হবে, উল্লেখ করে রাহুল বলেন, ‘এই বাংলাকে একটি ধর্মনিরপেক্ষ বাংলা হিসেবে গড়তে হবে। আর সেই লক্ষ্যে আমি এসেছি আপনাদের কাছে এই বাংলা ভাগের চক্রান্ত রুখতে এবং এই বাংলাকে বিজেপি ও তৃণমূলের হাত থেকে বাঁচাতে। তিনি বলেন, ‘এটা আমাদের রাজনৈতিক লড়াই, মতাদর্শের লড়াই। এই লড়াইতে আমাদের জিততে হবে।’

রাহুল গান্ধী গোয়াল পোখরোর পর আজ বিকেলে বাগডোগড়া এলাকার মাটিগাড়া- নকশালবাড়িতে কংগ্রেস আয়োজিত আর একটি জনসভায় যোগ দেন। রাহুল গান্ধী জোরের সঙ্গে আরও বলেছেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর আগে তো বিজেপির সঙ্গে ঘর করেছে। আমরা শুধু এটুকু বলতে চাই, মরে গেলেও কংগ্রেস বিজেপির সঙ্গে ঘর করবে না।’

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন