প্রতিষ্ঠানটি যাত্রা শুরুর পর থেকেই বিয়েশাদির ক্ষেত্রে কর্মীদের বিশেষ সুবিধা দিত। এরপর কর্মীদের সঙ্গী খুঁজতে সাহায্যের কাজটিও শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি।

তবে এসএমআই যাত্রা শুরুর কিছুদিনের মধ্যেই নতুন একটি নীতি গ্রহণ করে। এটি হলো বছরে কর্মীদের বেতন বাড়বে দুইবার। আর এই বেতন বৃদ্ধি হবে ৬ থেকে ৮ শতাংশ। গত বছর ভারতের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান যখন কর্মী সংকোচন নীতি গ্রহণ করেছিল, তখনো দুইবার বেতন বৃদ্ধি অব্যাহত রেখেছিল প্রতিষ্ঠানটি। এ ছাড়া প্রতিষ্ঠানের সেরা কর্মীদের জন্য ছিল বিশেষ সুবিধা।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়েছে, এসএমআইয়ের এসব বিশেষ সুবিধার কারণে কর্মীরা সহজে অন্য প্রতিষ্ঠানে যান না। অন্যান্য তথ্যপ্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠানে যখন কর্মীদের চাকরি ছাড়ার হার ২০ শতাংশ, তখন এই প্রতিষ্ঠানে কর্মী ছাড়ার হার ১০ শতাংশ।

বর্তমানে এসএমআইয়ে কাজ করেন ৭৫০ কর্মী। এর মধ্যে ৪০ শতাংশ কর্মী কমপক্ষে পাঁচ বছর ধরে এই প্রতিষ্ঠানে কাজ করছেন।

কর্মীদের ভালোমন্দ নিজেই দেখেন প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা এমপি সেলভা গণেশ। তিনি বলেন, ‘কর্মীরা যখন কোনো সংকটে পড়েন, তখন তাঁরা সরাসরি আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেন।’

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন