ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কর্ণাটকের রাজধানী বেঙ্গালুরুর চার্চ স্ট্রিটের একটি রেস্তোরাঁর কাছে বিস্ফোরণে ভবানী নামের এক নারী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছে পাঁচজন। গতকাল রোববার রাত সাড়ে আটটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

বিস্ফোরণের পর ভবানীকে মালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মাথায় ও মুখে আঘাতের কারণে সেখানেই ভবানীর মৃত্যু হয়েছে বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন। তিনি চেন্নাইয়ের বাসিন্দা। বিস্ফোরণে আহত ব্যক্তিরা হলো ভবানীর ভাতিজা কার্তিক, আই গেটের কর্মী সন্দীপ এইচ, চামারাজপেটের বাসিন্দা হরিশ কুমার ও নাভিন। তারাও ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আহত বাকি একজনের পরিচয় জানা যায়নি।

পুলিশের ভাষ্য, ওই বিস্ফোরণে আইইডি ব্যবহৃত হয়েছে। ঘটনার পরপরই পুলিশ ঘটনাস্থল ঘেরাও করে রাখে। ছুটে যায় ডগ ও বোম্ব স্কোয়াড। পুলিশ সিসিটিভি ফুটেজ দেখে দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

ঘটনার পরই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধারামাইয়ার সঙ্গে কথা বলেছেন। কর্ণাটক সরকার এ ব্যাপারে বিশেষ তদন্ত দল গঠন করেছে। তদন্তের ভার দেওয়া হয়েছে ভারতের জাতীয় তদন্ত সংস্থা এনআইএকে। বেঙ্গালুরুর এই বিস্ফোরণ কারা ঘটিয়েছে, এ ব্যাপারে এখনো নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। এ ঘটনার পর ভারতের মুম্বাই, দিল্লি, কলকাতা, পুনেসহ বড় বড় শহরে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। নতুন বছর সামনে রেখে যাতে দেশে কোনো নাশকতার ঘটনা না ঘটে, এ জন্য কড়া সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন