ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের রাজধানী বেঙ্গালুরুতে রোববার রাতে বোমা বিস্ফোরণে এক নারী নিহত ও তিনজন আহত হয়েছেন। জনপ্রিয় একটি রেস্তোরাঁর বাইরে এ ঘটনা ঘটে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কিরেন রিজিজু একে সন্ত্রাসবাদী হামলা বলে আখ্যায়িত করেছেন। খবর এনডিটিভির।
ভবানী বালা নামে এক নারী তাঁর ভাগনে কার্তিকের সঙ্গে বেড়াতে বেরিয়েছিলেন। রাত সাড়ে আটটার দিকে তাঁরা কোকোনাট গ্রোভ নামে ওই রেস্তোরাঁর সামনে পৌঁছালে ফুটপাতে রাখা কম ক্ষমতাসম্পন্ন একটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটে। ভবানীর মাথা এবং ঘাড়ে বিস্ফোরকের টুকরা লাগলে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। হাসপাতালে নেওয়ার কিছুক্ষণ পরই তিনি মারা যান। ওই ঘটনায় কার্তিকসহ আরও দুজন আহত হন। তাঁদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
ভবানী বালার স্বজনেরা জানান, দুই দিন আগে ভবানী চেন্নাই থেকে কর্ণাটকের মহীশুরে এক আত্মীয়ের জন্মদিনের উৎসবে যোগ দিতে আসেন। রোববার তাঁর ফিরে যাওয়ার কথা ছিল। তবে তিনি ফেরার টিকিট পাননি।
কর্ণাটক সরকার নিহত ভবানীর পরিবারকে পাঁচ লাখ রুপি ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে।
স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কিরেন রিজিজু এ ঘটনাকে সন্ত্রাসী হামলা বলে উল্লেখ করেছেন। সম্প্রতি আলোচিত নিষিদ্ধঘোষিত সংগঠন স্টুডেন্টস ইসলামিক মুভমেন্ট অব ইন্ডিয়ার (সিমি) সদস্যরা এ ঘটনায় জড়িত কি না, জানতে চাইলে কিরেন রিজিজু বলেন, ‘সম্ভাবনা রয়েছে।’ কিরেন এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেছেন, প্রয়োজন পড়লে ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি (এনআইএ) এ ঘটনার তদন্ত করবে।

বিজ্ঞাপন
ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন