বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ মোটামুটি শান্তিপূর্ণভাবেই ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। অবশ্য সামশেরগঞ্জ থেকে কিছু বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। কেন্দ্রের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির তরফ থেকেও বেশ কিছু অভিযোগ করা হয়েছে। একটি ঘটনার ভিডিও প্রকাশ করে বিজেপি জানিয়েছে, অনেক কেন্দ্রে ভুয়া ভোটারদের ধরার পরও পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

উদাহরণ হিসেবে দলটি তৃণমূলের কর্মী গুরমিত সিং জনিকে হাতেনাতে ধরার দাবি করে এবং ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তুলে ধরে। জনি দক্ষিণ কলকাতা যুব তৃণমূলের সহসভাপতি। বিজেপির অভিযোগ, অভিযুক্ত ব্যক্তিদের পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হলে তাঁরা পালিয়ে যান।

ভবানীপুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বিজেপির প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়াল অবশ্য দাবি করেন, অনেক জায়গাতেই তিনি ভুয়া ভোটার ধরেছেন। যদিও এক জায়গায় তাঁর বিরুদ্ধে প্রকৃত ভোটারকে ভুয়া বলে দাবি করার অভিযোগ উঠেছে। এক জায়গায় দেখা যায়, বিজেপির প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা কয়েকজন ভোটারের পেছনে দৌড়াচ্ছেন আর ‘চোর চোর’ বলে চিৎকার করছেন। অন্তত এক ডজন বুথে বিজেপির এজেন্টদের বসতে দেওয়া হয়নি এবং ভোটারদের ভোটও দিতে দেওয়া হয়নি বলেও অভিযোগ করেছে বিজেপি। তৃণমূলের দুই জ্যেষ্ঠ নেতা ফিরহাদ হাকিম ও সুব্রত মুখার্জি ভোটারদের প্রভাবিত করেছেন বলেও অভিযোগ দলটির। দলের এক নেতা ফুটবলার কল্যাণ চৌবের গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এর জন্য তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তুলেছে বিজেপি।

তৃণমূলের বক্তব্য, বিজেপি বিভিন্ন জায়গায় বাইরে থেকে লোক এনেছে এবং তাদের ভুয়া ভোটার বলে টেলিভিশনের সামনে উপস্থাপন করেছে। এসবের মাধ্যমে তারা সংঘর্ষ বাধানোর চেষ্টা করেছে। কল্যাণ চৌবে নিজেই ইট দিয়ে নিজের গাড়ি ভেঙেছেন বলেও দাবি করেছে তৃণমূল।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্বাচনের দিনে তাঁর জন্য একটি অস্বস্তিকর খবর হলো, একটি দুর্নীতির মামলায় ১২ অক্টোবর তাঁর ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরাকে সশরীর দিল্লির আদালতে হাজিরা দিতে বলেছেন বিচারক।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন