বিজ্ঞাপন


নাইসেড থেকে আরও বলা হয়েছে, এই পরীক্ষায় অংশ নেওয়া স্বেচ্ছাসেবকদের অবশ্যই সুস্থ থাকতে হবে। একবার কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হলে তাঁরা এতে যোগ দিতে পারবেন না। অন্তঃসত্ত্বারাও অংশ নিতে পারবেন না। পরীক্ষায় যোগদানের জন্য ব্যক্তিকে সম্মতিসূচক ফরমে স্বাক্ষর করতে হবে। পরীক্ষায় যোগ দেওয়া স্বেচ্ছাসেবকদের অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে, সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে চলাফেরা করতে হবে।


ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল রিসার্চ ও পুনের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজির যৌথ গবেষণায় কোভ্যাক্সিন তৈরি করেছে অন্ধ্র প্রদেশের হায়দরাবাদভিত্তিক সংস্থা ‘ভারত বায়োটেক’। এই টিকার ক্লিনিক্যাল পরীক্ষার অনুমতি দিয়েছে ভারতের ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া বা ডিসিজিআই।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন