default-image

ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের নাগপুরে একটি হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শুক্রবার রাতে অগ্নিকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটে। ওই হাসপাতালে কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসা দেওয়া হতো। আগুনে হাসপাতালের চার ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, ওই হাসপাতালে চার ব্যক্তির লাশ পাওয়া গেছে। হাসপাতালটিতে ৩০টি শয্যা ছিল। এর মধ্যে ২৭ জন রোগীকে অন্য হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। একজন পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, ‘ভর্তি ২৭ জন রোগীকে অন্য হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। তাঁদের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে আমরা এখন মন্তব্য করতে পারছি না। পুরো হাসপাতাল খালি করা হয়েছে।’

বিজ্ঞাপন

সংবাদ সংস্থা এএনআইয়ের খবরে বলা হয়েছে, দুজন রোগীর অবস্থা গুরুতর। নাগপুরের ওই হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ১৫টি শয্যা ছিল। নাগপুরের পৌরসভার কর্মকর্তা রাজেন্দ্র উচকে বলেছেন, ‘এখন পর্যন্ত যা জানা গেছে, তা হলো আগুনের সূত্রপাত হয় আইসিইউর শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ যন্ত্র থেকে। ভবনের ওই অংশ থেকে আগুন অন্য কোথাও ছড়ায়নি।’

এ ঘটনায় টুইট করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি এ ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন এবং নিহত ব্যক্তিদের পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। মহারাষ্ট্রের বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফড়নবিশ জানান, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে।

গত কয়েক সপ্তাহে ভারতের মহারাষ্ট্রে করোনার সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। আগামী সোমবার পর্যন্ত ওই রাজ্যে করোনার টিকা দেওয়ার কর্মসূচি আংশিকভাবে বন্ধ করা হয়েছে। এ ছাড়া সপ্তাহান্তের ছুটির দিনে সেখানে করোনা নিয়ন্ত্রণে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন