default-image

ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব বেফাঁস মন্তব্যের মাধ্যমে আরেক বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ভারতের বাইরে বিজেপির সম্প্রসারণের পরিকল্পনা রয়েছে দলটির। আজ সোমবার এনডিটিভি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

ত্রিপুরার রাজধানী আগরতলায় শনিবার বিজেপির এক অনুষ্ঠানে বিপ্লব ওই মন্তব্য করেন। সেখানে তিনি বলেন, শুধু ভারতজুড়েই নয়, প্রতিবেশী একাধিক দেশেও বিজেপির সম্প্রসারণের পরিকল্পনা রয়েছে।

এ প্রসঙ্গে বিপ্লব বলেন, নেপাল ও শ্রীলঙ্কায় বিজেপির সরকার গঠনের পরিকল্পনা রয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর।

বিপ্লবের ভাষ্য, ২০১৮ সালে ত্রিপুরা বিধানসভা নির্বাচনের প্রস্তুতির সময় এই বিষয়টি এক আলোচনায় উঠে আসে। ওই নির্বাচনে বামফ্রন্টকে পরাজিত করে ত্রিপুরায় সরকার গঠন করে বিজেপি।

বিপ্লব জানান, যখন বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়, তখন বিজেপির প্রধান ছিলেন অমিত শাহ। তিনি ভারতের বাইরে বিজেপির সম্প্রসারণের পরিকল্পনার কথা জানান।

বিজ্ঞাপন

ঘটনার বিবরণ দিতে গিয়ে বিপ্লব বলেন, রাজ্যের গেস্টহাউসে এই আলোচনাটি হয়। আলোচনার একপর্যায়ে বিজেপির উত্তর-পূর্ব জোনের সম্পাদক অজয় জামওয়াল বলেন, বিভিন্ন রাজ্যে বিজেপি সরকার গঠন করেছে। জবাবে অমিত শাহ বলেন, এখন শ্রীলঙ্কা ও নেপালে বাকি রয়েছে। শ্রীলঙ্কা ও নেপালে দলের সম্প্রসারণ করতে হবে। সেখানে সরকার গঠন করতে জয়ী হতে হবে।

বিজেপিকে বিশ্বের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দলে পরিণত করার জন্য অমিত শাহর নেতৃত্বের প্রশংসা করেন বিপ্লব।

বিপ্লব আরও বলেন, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল কংগ্রেস আসন্ন রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে পরাজিত হবে।

বিপ্লব আগে একাধিক বেফাঁস মন্তব্য করে বিতর্কের জন্ম দেন। তিনি তেমনই এক মন্তব্য করেন ২০১৮ সালের এপ্রিলে। তখন তিনি বলেছিলেন, মহাভারতের সময়ও ইন্টারনেট ও স্যাটেলাইট যোগাযোগ ছিল। ইউরোপ ও আমেরিকানরা দাবি করতে পারেন, এগুলো তাদের আবিষ্কার। কিন্তু এগুলো আসলে তাদের (ভারত) প্রযুক্তি।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন