default-image

ভারতের মহারাষ্ট্রে নতুন করোনাভাইরাস ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়েছে। এমন পরিস্থিতিতে মুম্বাইয়ে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করে আদেশ জারি করা হয়েছে। মুম্বাইয়ের পৌর কর্তৃপক্ষের দেওয়া এই আদেশে আজ বুধবার বলা হয়েছে, মাস্ক না পরলে আদেশ ভঙ্গকারীকে গ্রেপ্তার করা হবে এবং অন্যান্য কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, মুম্বাইয়ের সব জনসমাগম স্থল, অফিস, এমনকি যানবাহনের ভেতরে থাকলেও মাস্ক পরতে হবে। এই আদেশ অবিলম্বে কার্যকরের আদেশ দিয়েছে মুম্বাইয়ের পৌর কর্তৃপক্ষ। সংস্থাটির কমিশনার প্রবীণ পরদেশি বলেছেন, মানসম্মত মাস্ক পরতে হবে। সার্জিক্যাল মাস্কের পাশাপাশি বারবার ব্যবহার করার মতো উপযোগী মাস্কও পরা যাবে।

নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে বাইরে বের হলে মাস্ক পরার জন্য জনসাধারণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। মহারাষ্ট্রের বাইরে চণ্ডীগড়, নাগাল্যান্ড ও ওডিশায়ও মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করে আদেশ জারি হয়েছে।

মুম্বাইয়ের জনসংখ্যা ২ কোটির বেশি। মুম্বাই ও এর শহরতলিগুলোতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নতুন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ৭৮২ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। ওই এলাকায় এ পর্যন্ত ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে। সব মিলিয়ে পুরো মহারাষ্ট্রে ১ হাজারের বেশি মানুষের দেহে নতুন করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া সর্বশেষ বুলেটিনে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে নতুন করোনাভাইরাসের কারণে ভারতজুড়ে লকডাউন ঘোষণা করেছিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ১৪ এপ্রিল এই লকডাউনের সময়সীমা শেষ হওয়ার কথা।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, ভারতে ৫ হাজার ১৯৪ জন মানুষের দেহে নতুন করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ৪০২ জন সুস্থ হয়ে উঠেছে। আর মারা গেছে ১৪৯ জন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0