default-image

ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচন নিয়ে এক যৌথ জনমত সমীক্ষা চালিয়েছে টাইমস নাউ ও ভিএমআর। সমীক্ষায় লোকসভা নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ফের বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ সরকার গড়বে বলে আভাস পাওয়া গেছে।

আগামী ১১ এপ্রিল থেকে ভারতের লোকসভার ৫৪৩টি আসনে শুরু হবে সাত দফায় ভোট। ৫৪৩টি আসনের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গে রয়েছে ৪২টি আসন। এবার পশ্চিমবঙ্গেও বড় ধাক্কা দিতে পারে বিজেপি। কমতে পারে তৃণমূলের আসন।

পশ্চিমবঙ্গে এবার ৪২টি আসনে এককভাবে জয়ের ঘোষণা দিয়ে রেখেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর বিজেপি ঘোষণা দিয়েছে, তারা ২৩টি আসনে জিতবে।

ভারতে সরকার গড়তে প্রয়োজন ২৭২টি আসন। জনমত সমীক্ষায় বলা হয়েছে, বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ পেতে পারে ২৮৩টি আসন। অন্যদিকে, কংগ্রেসের নেতৃত্বাধীন ইউপিএ পেতে পারে ১৩৫টি আসন। তৃতীয় শক্তি মমতা-মায়াবতী-চন্দ্রবাবু-অখিলেশ যাদবদের জোট পেতে পারে ১২৫টি আসন।

পশ্চিমবঙ্গের ৪২টি আসনের মধ্যে তৃণমূল পেতে পারে ৩১টি আসন। বিজেপি পেতে পারে ১১টি আসন। বামদল ও কংগ্রেসের এবার শূন্য হাতে ফিরতে হতে পারে।

২০১৪ সালে পশ্চিমবঙ্গে ৪২টি আসনের মধ্যে তৃণমূল পেয়েছিল ৩৪টি আসন। কংগ্রেস ৪টি, বামফ্রন্ট ও বিজেপি ২টি করে আসন পায়।

বিজেপি বলেছে, পশ্চিমবঙ্গে তাদের আসন বাড়বে।

কংগ্রেস ও বামফ্রন্টও বলছে, তারা গত নির্বাচনের চেয়ে এবার বেশি আসন পাবে।

মমতা বলছেন, শুধু পশ্চিমবঙ্গ নয়, মোদিবিরোধী সরকার গড়া হবে কেন্দ্রে। তাতে অন্যতম নির্ণায়ক শক্তি হিসেবে আবির্ভূত হবে তৃণমূল।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন