বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিশ্বে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের পরেই রয়েছে ভারত। ভারতের পর রয়েছে ব্রাজিল। সংক্রমণের দিক দিয়ে দিন কয়েক আগে ব্রাজিলকে টপকে যায় ভারত।

পরিসংখ্যান নিয়ে কাজ করা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস শুরু থেকেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের করোনাবিষয়ক হালনাগাদ তথ্য দিয়ে আসছে। ওয়ার্ল্ডোমিটারসের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩ কোটি ২৩ লাখ ৭২ হাজার ১১৯। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ৫ লাখ ৮০ হাজার ৭৫৬ জন। ব্রাজিলে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৩৯ লাখ ১৩৪। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ৩ লাখ ৭১ হাজার ৮৮৯ জন।

ওয়ার্ল্ডোমিটারসের তথ্য অনুযায়ী, আজ রোববার বাংলাদেশ সময় বেলা ১১টা নাগাদ বিশ্বে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৪ কোটি ১৩ লাখ ১৬ হাজার ১২। একই সময়ে বিশ্বে করোনায় মোট মারা গেছেন ৩০ লাখ ২৩ হাজার ৯১১ জন। এখন পর্যন্ত বিশ্বে করোনা থেকে সেরে ওঠা মানুষের সংখ্যা ১১ কোটি ৯৯ লাখ ২৩ হাজার ১৬৪।

ভারতে করোনার সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ে গতকাল শনিবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি উচ্চপর্যায়ের পর্যালোচনা বৈঠক করেছেন। বৈঠক শেষে মোদি টুইট করেছেন। তিনি তাঁর টুইটে বলেন, ‘আমরা গত বছর যেমনটা করেছিলাম, এবারও সাফল্যের সঙ্গে আরও বেশি গতি ও সমন্বয়ের মাধ্যমে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করব।’

করোনা পরিস্থিতির মারাত্মক অবনতির মুখে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে রাত্রিকালীন কারফিউসহ বিভিন্ন বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। এদিকে দেশটিতে করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় হাসপাতালগুলোতে শয্যা, চিকিৎসা, ওষুধ, অক্সিজেন প্রভৃতির মারাত্মক সংকট নিয়ে গণমাধ্যমে নানা খবর আসছে।

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল পরিস্থিতিকে খুবই গুরুতর ও উদ্বেগজনক হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

করোনা মহামারির মধ্যে উত্তরাখন্ড রাজ্যের হরিদ্বারে লাখ লাখ মানুষের উপস্থিতিতে কুম্ভমেলা হওয়া নিয়ে দেশটিতে সমালোচনা চলছে। এ মেলা থেকে অনেকেই করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন। সমালোচনার মুখে কুম্ভমেলা প্রতীকী উদ্‌যাপনের জন্য পুণ্যার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন