default-image

ভারতে আল-কায়েদা জঙ্গি সন্দেহে গ্রেপ্তার ১১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে। দেশটির জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ গতকাল শুক্রবার দিল্লির এনআইএর বিশেষ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে।

গত বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার ডোমকল ও জলঙ্গি থেকে গ্রেপ্তার করা হয় ছয়জনকে। আর কেরালার এর্নাকুলাম থেকে গ্রেপ্তার করা হয় তিনজনকে। এই নয়জনই মুর্শিদাবাদের বাসিন্দা। এরপর ২৬ সেপ্টেম্বর ও ১ নভেম্বর আরও দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয় মুর্শিদাবাদ থেকে।

এই ১১ জন হলেন মুরশিদ হাসান, মোশারফ হোসেন, মইনুল মণ্ডল, লিয়ন আহমেদ, নাজমুস সাকিব, ইয়াকুব বিশ্বাস, শামিম আনসারী, আবু সুফিয়ান, আতিউর রহমান, আল মামুন কামাল ও আবদুল মোমিন মণ্ডল। তাঁদের সবার বাড়ি মুর্শিদাবাদ জেলায়।

বিজ্ঞাপন

১১ জনকে গ্রেপ্তারের পর এনআইএ জানিয়েছিল, তাঁদের কাছ থেকে অস্ত্রশস্ত্র, উগ্রবাদী বই, ডিজিটাল ডিভাইস, দেশি বন্দুক ও বোমা তৈরির বই উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁদের সঙ্গে আল-কায়েদা জঙ্গিগোষ্ঠীর যোগাযোগ রয়েছে। এই জঙ্গিরা দিল্লিসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে হামলার ছক কষেছিলেন।

গ্রেপ্তারের পর ১১ জনকে রিমান্ডের জন্য কলকাতা থেকে নিয়ে যাওয়া হয় দিল্লিতে। সেখানে তাঁদের হাজির করা হয় এনআইএর বিশেষ আদালতে। সেই আদালতেই গতকাল এনআইএ তাঁদের বিরুদ্ধে নাশকতার সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগ এনে অভিযোগপত্র দিয়েছে। এতে আরও অভিযোগ করা হয়েছে দেশদ্রোহ, বেআইনি কার্যকলাপসহ সন্ত্রাসী কার্যকলাপের যুক্ত থাকার। এই দলের এখনো কয়েকজন পলাতক। তাঁদের খোঁজে এনআইএ তল্লাশি অব্যাহত রেখেছে।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন