কলকাতা পৌর করপোরেশনে গরিব মানুষের জন্য পাঁচ টাকায় দুপুরের খাবারের প্রকল্প চালু করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই প্রকল্পের নাম দেওয়া হয়েছে ‘মা ক্যানটিন’। সোমবার ভার্চ্যুয়ালি এই ক্যানটিনের উদ্বোধন করেন তিনি। আপাতত ১টি করে মোট ১৬টি ক্যানটিন চালু হয়েছে পৌর করপোরেশনের ১৬টি প্রশাসনিক এলাকা বা বরাতে। এ জন্য প্রাথমিকভাবে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ১০০ কোটি রুপি।

default-image


মূলত বরার ক্যানটিনগুলোতে ব্যবস্থা করা হবে এ খাবারের। সেখানে পাঁচ টাকায় দুপুরে মিলবে প্রয়োজনীয় ভাতের সঙ্গে ডাল, সবজি ও ডিম। প্রতিদিন দুপুরের একটি নির্দিষ্ট সময়ে এসব ক্যানটিনে গিয়ে খাবার খেতে পারবে গরিব মানুষেরা। প্রতিদিন কাজের জন্য গ্রাম ও রাজ্যের বিভিন্ন এলাকা থেকে কলকাতায় আসেন অনেক গরিব মানুষ। মূলত তাঁদের কথা মাথায় রেখেই এই প্রকল্প চালু করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, পরবর্তী সময় এই ক্যানটিন প্রকল্প চালু হবে রাজ্যের সবখানে। কলকাতা করপোরেশন সূত্রে জানা গেছে, করপোরেশনের ‘স্বনির্ভর গোষ্ঠী’ এসব ক্যানটিনের খাবার রান্না করবে। আর তা পরিবেশন করবে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো।

default-image

এর আগে কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে গরিব মানুষের মুখে কম দামে আহার দিতে বাম দল কলকাতা শহরে চালু করেছিল শ্রমজীবী ক্যানটিন। প্রথম চালু করা হয় দমদমে গত বছরের মার্চের শেষ দিকে। চাঁদা তুলে ওই ক্যানটিন চালু করা হয়েছিল। এখনো কলকাতার বিভিন্ন এলাকায় চালু রয়েছে এই ক্যানটিন। এসব ক্যানটিনে এখনো শ খানেক গরিব মানুষকে প্রতিদিন বিনা মূল্যে খাবার দেওয়া হয়। আর সাধারণ মানুষ খেতে চাইলে ২০ টাকা দিতে হয়। এই ক্যানটিন এখন কলকাতায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। আর এই শ্রমজীবী ক্যানটিন চালানোর জন্য এগিয়ে এসেছে বিভিন্ন অরাজনৈতিক সংগঠন ও সাধারণ মানুষও। তাঁরা চাঁদা তুলে সচল রেখেছেন এই শ্রমজীবী ক্যানটিন।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন