বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, ৬৪ বছর বয়সী মুকেশ আম্বানি বলেন, রিলায়েন্স এখন গুরুত্বপূর্ণ নেতৃত্বের পরিবর্তনের প্রক্রিয়ার মধ্যে আছে। জ্যেষ্ঠদের মধ্য থেকে পরবর্তী প্রজন্মের তরুণ নেতাদের হাতে তিনি কোম্পানিকে দেখতে চান। উত্তরাধিকার সম্পর্কে মুকেশ আম্বানির মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে কোম্পানির পক্ষ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। আম্বানির তিন সন্তান—আকাশ, ইশা ও অনন্ত। আকাশ ও ইশা যমজ।

মুকেশ আম্বানি বলেন, রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড আসছে বছরগুলোয় বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী ও অন্যতম ভারতীয় বহুজাতিক কোম্পানি হবে। তিনি চান, পরিচ্ছন্নতার সঙ্গে কোম্পানি পরিচালিত হোক। সেই লক্ষ্যে পরিবেশবান্ধব জ্বালানি খাতের পাশাপাশি খুচরা ও টেলিকম ব্যবসাকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যেত চান তিনি। নিজের স্বপ্নকে আরও বড় আকার দিতে সঠিক মানুষ এবং সঠিক নেতৃত্ব পাওয়ার বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেন তিনি।

এশিয়ার অন্যতম ধনকুবের ভারতের মুকেশ আম্বানি বলেন, ‘এখন রিলায়েন্সকে অত্যন্ত দক্ষ, অত্যন্ত প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ও প্রতিশ্রুতিশীল তরুণ নেতৃত্বের হাতে তুলে দেওয়া উচিত। আমিসহ আমাদের জ্যেষ্ঠ নেতৃত্বের উচিত তাদের পরামর্শ দেওয়া, তাদের নেতৃত্বের জন্য তৈরি করে তোলা, তাদের উৎসাহিত করা এবং তাদের ক্ষমতায়ন করা। তারা যাতে আমাদের থেকে ভালো করতে পারে, সেটা দেখা উচিত। তরুণ নেতৃত্বের প্রশংসা করা উচিত আমাদের।’

আম্বানি বলেন, রিলায়েন্সে একটি সাংগঠনিক কাঠামোর সংস্কৃতি তৈরি করা উচিত, যেন তারা নেতাদের ছাড়িয়ে যায়। তিনি আরও বলেন, কোনো সন্দেহ নেই যে আকাশ, ইশা ও অনন্ত পরবর্তী প্রজন্মের নেতা হিসেবে রিলায়েন্সকে আরও উচ্চতায় নিয়ে যাবে। তাঁদের মধ্যে তিনি একই সম্ভাবনা দেখেছেন।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন