বিজ্ঞাপন

উদ্ধারকারী কর্মকর্তারা জানান, আহত ব্যক্তিদের স্থানীয় হাসপাতালগুলোতে পাঠানো হচ্ছে। এসব এলাকায় অনেকেই এখনো আটকা পড়ে আছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাদের উদ্ধারে চেষ্টা চলছে।

গতকাল রাত আটটা থেকে দিবাগত রাত দুইটা পর্যন্ত পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, মুম্বাইয়ে ১৫৬ দশমিক ৯৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। এর মধ্যে শহরের পূর্বাঞ্চলে ১৪৩ দশমিক ১৪ মিলিমিটার এবং পশ্চিমাঞ্চলে ১২৫ দশমিক ৩৭ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। মুম্বাইয়ের চুনাভাট্টি, সিওন, দাদার, গান্ধী মার্কেট, চিম্বুর, কুরলা, এলবিএস রোডের এলাকাগুলোতে জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে।

আগামী পাঁচ দিনও মুম্বাইয়ে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে জানিয়েছে ভারতের আবহাওয়া বিভাগ। এর আগে ২০১৯ সালে টানা ২৪ ঘণ্টা শহরটিতে বৃষ্টিপাত হয়। সে বছরের ২ জুলাই ৩৭৫ দশমিক ২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। ২০১০ সালের পর থেকে এটিই ছিল মুম্বাইয়ে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতের রেকর্ড।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন