বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে স্থানীয় মাজহলি থানার কর্মকর্তা সচিন সিং জানান, বানরটি তোয়ালেটি ঝাঁকাতে শুরু করলে চারদিকে নোট পড়তে থাকে। আশপাশের লোকজন সেই নোট কুড়িয়ে ওই ব্যক্তিকে ফেরত দেন। তবে ৪৪ হাজার রুপি না পেয়ে হতাশ হয়ে পড়েছেন ওই ব্যক্তি।

সচিন সিং জানান, ঘটনাস্থলের আশপাশে সিসিটিভি ক্যামেরা নেই। ফলে বানরটি কোন দিকে পালিয়ে গেছে বা কোথাও বাকি রুপি ফেলে দিয়েছে কি না, তা এখনো জানা যায়নি। এ ব্যাপারে চুরি বা ছিনতাইয়ের কোনো মামলা হয়নি বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা। তাঁর ভাষ্য, এ ক্ষেত্রে ‘অপরাধী’ একটি বন্য প্রাণী হওয়ায় মামলা রুজু করা যায়নি।

পুলিশ জানায়, এই এলাকায় থাকা বানরগুলোকে স্থানীয়রা প্রায়ই খাবার দেয়। এ কারণে প্রাণীগুলো খাবারের জন্য কখনো কখনো বাড়িঘরসহ গাড়ির ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করে। ওই ব্যক্তির হাতে থাকা তোয়ালের ভেতর খাবার থাকতে পারে ভেবেই হয়তো বানরটি সেটি নিয়ে যায়।

কিছুদিন আগে উত্তর প্রদেশে একই ধরনের একটি ঘটনা ঘটেছিল বলে টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে জানানো হয়। সেখানে একজন আইনজীবীর হাতে থাকা দলিলপত্রসহ দুই লাখ রুপি নিয়ে গিয়েছিল একটি বানর। পরে প্রাণীটি গাছে উঠে তা ছড়িয়ে দেয়।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন