default-image

পশ্চিমবঙ্গের নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশনে ১৪ জন রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুকে আটক করেছে রেল পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানী এক্সপ্রেস ট্রেন থেকে তাদের আটক করা হয়। তারা আসামের বদরপুর স্টেশন থেকে দিল্লি যাচ্ছিল। নাম বদল করে দালালের মাধ্যমে টিকিট কেটে ট্রেনে ওঠে।

আটক রোহিঙ্গাদের মধ্যে রয়েছে আটজন নারী, চারজন পুরুষ ও দুটি শিশু।

জলপাইগুড়ি রেল পুলিশ বলেছে, আসামের বদরপুর স্টেশন থেকে রোহিঙ্গারা ট্রেনে ওঠে।

পশ্চিমবঙ্গের আলিপুরদুয়ার স্টেশনে অন্য যাত্রীদের কাছ থেকে অভিযোগ পায় পুলিশ। পরে সন্দেহভাজন হিসেবে নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশনে তাদের আটক করা হয়। শিলিগুড়ি শহরেই স্টেশনটি। সেখান থেকে তাদের নিয়ে যাওয়া হয় শিলিগুড়িতে। পরে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে নিজেদের রোহিঙ্গা উদ্বাস্তু হিসেবে স্বীকার করেছে তারা।

উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের মুখ্য জনসংযোগ কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেছেন, বাংলাদেশের রোহিঙ্গা উদ্বাস্তু শিবির থেকে তারা পালিয়ে এসেছে বলে জেনেছেন তিনি। তাদের ট্রেনের টিকিট বেআইনি। ভুয়া নাম–পরিচয় দিয়ে কাটা হয়েছিল। আগরতলা-নয়াদিল্লি বিশেষ রাজধানী এক্সপ্রেস ট্রেনে করে তারা অন্যত্র যাওয়ার চেষ্টা করছিল। তাদের সাহায্য করেছে দালালেরা।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন