default-image

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের সপ্তম দফায় ভোট হবে ৩৬ আসনে। এসব জায়গায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ২৮৪ জন। তাঁদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সম্পদশালী তিনজন প্রার্থীই ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেসের।

মঙ্গলবার ভারতের অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্রেটিক রিফর্মস (এডিআর) এবং ওয়েস্ট বেঙ্গল ইলেকশন ওয়াচের যৌথ সমীক্ষা প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। মনোনয়নপত্রের সঙ্গে দেওয়া প্রার্থীদের হলফনামা পর্যালোচনা করে এই প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে।

সবচেয়ে বেশি সম্পদশালী তৃণমূল কংগ্রেসের মুর্শিদাবাদ জেলার জঙ্গিপুর আসনের প্রার্থী জাকির হোসেন। তাঁর সম্পদের পরিমাণ ৬৭ কোটি ২২ লাখ ৯০ হাজার রুপি। পেশায় ব্যবসায়ী জাকির রাজ্যের বিদায়ী মন্ত্রিসভার শ্রম প্রতিমন্ত্রী ছিলেন। সর্বশেষ ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে বিজয়ী ২৯৪ জন প্রার্থীর মধ্যে তিনি ছিলেন দ্বিতীয় সম্পদশালী। জাকির হোসেন ২০১৯-২০ অর্থবছরে আয়কর রিটার্নে তাঁর আয় দেখিয়েছেন ১১ কোটি ৬৪ লাখ রুপি।

বিজ্ঞাপন

জাকির হোসেন এবার মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার আগে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি মুর্শিদাবাদ থেকে কলকাতায় আসার পথে নিমতিতা স্টেশনে বোমা হামলার শিকার হন। হামলায় তিনিসহ ২৬ জন আহত হন। একজন মারাও যান।

সম্পদের দিক দিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছেন পশ্চিম বর্ধমানের দুর্গাপুর পূর্ব আসনের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী প্রদীপ মজুমদার। আর তৃতীয় স্থানে আছেন কলকাতা বন্দর আসনের তৃণমূল প্রার্থী ও সাবেক কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। এঁদের দুজনের সম্পদের পরিমাণ যথাক্রমে ১৮ কোটি ১৪ লাখ রুপি ও ১৩ কোটি ৩৪ লাখ রুপি।
এই দফার ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারীদের মধ্যে ১৫ জনের ৫ কোটি বা তার বেশি মূল্যের সম্পদ রয়েছে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এ ছাড়া এই দফার প্রার্থীদের মধ্যে ৭৩ জনের বিরুদ্ধেই বিভিন্ন ফৌজদারি অপরাধের অভিযোগে মামলা রয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীদের বিরুদ্ধে সমসংখ্যক ফৌজদারি মামলা রয়েছে। তাঁদের মোট মামলার সংখ্যা ৩৬। আর সিপিএম ও কংগ্রেসের ৯ জন করে প্রার্থীর বিরুদ্ধেও একই ধরনের মামলা রয়েছে। আবার এই ৭৩ জনের মধ্যে ১৮ জন প্রার্থীর বিরুদ্ধে নারী নির্যাতনের মামলা রয়েছে। ৩ জনের বিরুদ্ধে ঝুলছে খুনের মামলা, আর ১৪ জনের বিরুদ্ধে রয়েছে হত্যাচেষ্টার মামলা।

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের পঞ্চম দফার ভোট শেষ হয়েছে শনিবার, ১৭ এপ্রিল। এখন বাকি রয়েছে তিন দফার ভোট। ২২, ২৬ ও ২৯ এপ্রিল এই ভোট হবে। এরপর বিধানসভার ২৯৪ আসনের নির্বাচনের ফলাফল একযোগে ২ মে ঘোষণা করা হবে।

বিজ্ঞাপন
ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন