default-image

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে তাঁর দল বিজেপি জয়ী হবে। আর বিজেপি ক্ষমতায় এলে ‘সিটি অব জয়’ থেকে কলকাতাকে ‘সিটি অব ফিউচার’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে।

মোদি শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গে এসে চারটি নির্বাচনী সভায় ভাষণ দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু চলমান করোনা পরিস্থিতির কারণে সফর বাতিল করেন তিনি। ওই চার প্রচার সভার পরিবর্তে শুক্রবার দিল্লি থেকে ভার্চ্যুয়ালি ভাষণ দেন ৬ জেলার ভোটারদের উদ্দেশে। শেষ দুই দফা নির্বাচনের ৫৬টি কেন্দ্রে জায়ান্ট স্ক্রিন লাগিয়ে এলাকার মানুষজনকে মোদির ভাষণ শোনার ব্যবস্থা করে বিজেপি।

সেই ভাষণেই মোদি বলেন, বাংলার মানুষের আশীর্বাদে এবার এই বাংলায় ক্ষমতায় আসবে বিজেপি। বিজেপি এই বাংলাকে সোনার বাংলায় রূপ দেবে। কেন্দ্র ও রাজ্যের ডবল ইঞ্জিন সরকার গড়ে বাংলার উন্নয়নে ব্রতী হবে। তিনি বলেন, কলকাতা আজ দেশের এক ঐতিহ্যবাহী শহর। সিটি অব জয়। এবার বিজেপি ক্ষমতায় এসে এই কলকাতাকে ‘সিটি অব ফিউচার’ হিসেবে গড়ে তুলবে। বাংলাকে গুন্ডামুক্ত রাজ্য হিসেবে গড়ে তুলবে। কলকাতা হবে বিভেদমুক্ত এক শহর। বিজেপি ক্ষমতায় এসে এই রাজ্যের অপরাধ দমনের জন্য ফাস্ট ট্রাক আদালত গড়ে অপরাধীদের বিচার করবে।

বাংলার গৌরব ফিরিয়ে আনবে। নারীদের সুরক্ষা দেবে। গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনবে।

বিজ্ঞাপন

মোদি বলেন, উন্নয়নের শত্রু হলো অনুপ্রবেশ, পাচার, তোলাবাজি, সিন্ডিকেট রাজ। বিজেপি ক্ষমতায় এলে এসব বন্ধ করে বাংলাকে সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তুলবে। গুন্ডারাজ বন্ধ করবে। বাংলার যুবকদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করবে। গরিবদের পাকা বাড়ি দেবে। পানীয় জলের ব্যবস্থা করবে গ্রামাঞ্চলে। বাংলায় কৃষি ও শিল্পের বিকাশ ঘটিয়ে এই রাজ্যে দ্রুত শিল্পায়ন করবে। পঞ্চায়েত ব্যবস্থার উন্নয়ন করবে। এই বাংলায় বিনিয়োগ বাড়িয়ে বাংলায় কৃষি ও শিল্পে জোয়ার ঘটাবে। মেট্রোরেলের উন্নয়ন করবে। আইনব্যবস্থাকে আরও উন্নত করা হবে।

মোদি বলেন, করোনার কারণে তিনি পশ্চিমবঙ্গে আসতে পারেননি। এ জন্য দুঃখ প্রকাশও করেন। তিনি বলেন, করোনা টিকা নেওয়ার পরও সবাইকে মাস্ক পরে, করোনা বিধি মেনে চলতে হবে। করোনাকে জয় করার যুদ্ধে ভারত সরকার দেশবাসীর পাশে আছে। করোনা প্রতিরোধে কেন্দ্রীয় সরকার সার্বিক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।
পশ্চিমবঙ্গে আট দফায় অনুষ্ঠেয় বিধানসভার নির্বাচনে বাকি রয়েছে দুই দফার নির্বাচন। সেই নির্বাচন হবে ২৬ ও ২৯ এপ্রিল। ২ দফায় মোট ৭১ আসনে ভোট গ্রহণ করা হবে। ফল প্রকাশ হবে ২ মে।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন