বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ওই ঘটনায় সুপ্রিম কোর্ট স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে মামলাটি শুনতে চেয়ে রাজ্য সরকারকে নোটিশ পাঠান। শুনানির দ্বিতীয় দিনে উত্তর প্রদেশ সরকারের হয়ে আইনজীবী হরিশ সালভে প্রধান বিচারপতির এজলাসে বলেন, ‘আজ শনিবার ৯ অক্টোবর আশিস মিশ্রকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়েছে। তিনি না এলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা যেতে পারে।’

গাড়িচাপায় কৃষক হত্যার ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত মন্ত্রিপুত্র এখনো গ্রেপ্তার না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে আদালত বলেন, ‘শুধু সমন জারি করেই দায়িত্ব শেষ? সাধারণ খুনের মামলায় এমন করা হয় কি?’

এদিকে আশিসকে আজ সকাল ১০টায় ডাকা হলেও তিনি তদন্তকারী দলের মুখোমুখি হননি। ধারণা করা হচ্ছে, মন্ত্রিপুত্র গ্রেপ্তার এড়াতে নেপাল চলে গেছেন। লখিমপুর খেরি নেপাল সীমান্তবর্তী জেলা। প্রধান অভিযুক্ত ফেরার। তদন্তকারী রাজ্য পুলিশ স্রেফ সমন পাঠিয়ে খালাস।

অসন্তুষ্ট প্রধান বিচারপতি ক্ষোভ প্রকাশ করে রাজ্যের আইনজীবীকে বলেন, ‘কোন বার্তা রাজ্য দিতে চাইছে? স্বাভাবিক ঘটনায় পুলিশ কি সঙ্গে সঙ্গে খুনের অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে না? এ ক্ষেত্রে মুখের কথা ছাড়া কাজের কাজ কিছুই দেখা যাচ্ছে না।’ রাজ্য সরকারের আইনজীবী স্বীকার করেন, প্রয়োজন অনুযায়ী পদক্ষেপ এ ক্ষেত্রে হয়নি। অসন্তুষ্ট প্রধান বিচারপতি তখন ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘স্বাভাবিক মামলায় পুলিশ যেভাবে কাজ করে, এ ক্ষেত্রেও যেন তেমনই হয়। নইলে দশেরার পর আদালত খুললে ব্যবস্থা।’

উল্লেখ্য, এক সপ্তাহ আগে উত্তর প্রদেশের লখিমপুর খেরি জেলায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রর গাড়িবহর চার কৃষককে চাপা দিয়ে মেরে ফেলে। উত্তেজিত কৃষকদের পিটুনিতে মারা যান তিন বিজেপি সমর্থক এবং এক গাড়িচালক। অভিযোগ, মন্ত্রীর পুত্র আশিস ওই গাড়ি চালাচ্ছিলেন।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন