ভারতের গুজরাট রাজ্যের আহমেদাবাদ জেলায় সোয়াইন ফ্লু প্রতিরোধে ১৪৪ ধারা জারি করেছে প্রশাসন। রোগটির জীবাণুর সংক্রমণ ঠেকাতে অনুমতি ছাড়া জনসমাবেশ ঠেকাতে এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। খবর পিটিআইর।
ছোঁয়াচে সোয়াইন ফ্লুর ভাইরাস মূলত জনসমাগমের স্থানে ভিড় করা মানুষদের হাঁচি ও কাশির মাধ্যমে ছড়িয়ে থাকে।
গত জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত আহমেদাবাদে অর্ধশতাধিকসহ শুধু গুজরাট রাজ্যেই ২৩০ জনের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। সোয়াইন ফ্লু ভাইরাস ধরা পড়েছে এমন মানুষের সংখ্যা এ রাজ্যেই ৩ হাজার ৫০০ ২৭ জন। মৃত্যুর ঘটনাও এ রাজ্যে সর্বোচ্চ।
প্রশাসনের জারি করা ১৪৪ ধারার মাধ্যমে বিয়ে কিংবা মৃতের সৎকারেও জনসমাগম নিষিদ্ধ করা হয়েছে। একান্তই এমন জনসমাগম এড়ানো না গেলে, আয়োজকদের প্রশাসনের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে এবং সোয়াইন ফ্লু রোধে যথাযথ পূর্বপ্রস্তুতি গ্রহণ করতে হবে।
প্রথম আলোর কলকাতা প্রতিনিধি অমর সাহা জানান, সোয়াইন ফ্লু রোধের জন্য পশ্চিবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শূকর হটানোর ডাক দিয়েছেন। রাজ্য সরকারের এ নির্দেশ ইতিমধ্যে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন পৌরসভায় পৌঁছে গেছে। পশ্চিমবঙ্গে সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৮০। মৃত্যু হয়েছে পাঁচজনের।
ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে সোয়াইন ফ্লুতে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত মারা গেছে ৮৭৫ জন।

বিজ্ঞাপন
ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন