default-image

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণের কারণে দীর্ঘ ১১ মাস বন্ধ থাকার পর আজ শুক্রবার ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে উচ্চবিদ্যালয়গুলো খুলেছে। রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেছেন, করোনাবিধি মেনে সরকারি ও বেসরকারি উচ্চবিদ্যালয় খোলার সার্বিক ব্যবস্থা নিয়েছে রাজ্য সরকার। নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির ক্লাসগুলো শুরু হয়েছে আজ। চলবে ব্যবহারিক ক্লাসও।

এদিকে পশ্চিমবঙ্গে বাম দল এবং কংগ্রেসের ১০টি ছাত্র ও যুব সংগঠনের ডাকে আজ হরতাল চলছে। এই হরতালের মধ্যেই খুলল উচ্চবিদ্যালয়গুলো। হরতালে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর সামনে বিক্ষোভ করেছেন বাম দল ও কংগ্রেসের সমর্থকেরা। এ ছাড়া হরতালে বিচ্ছিন্ন ঘটনাও ঘটে। সড়ক ও রেলপথ অবরোধ করে রাখা হয়।

বিজ্ঞাপন

গতকাল বৃহস্পতিবার রাজ্য সচিবালয় নবান্নে পুলিশের সঙ্গে এসব দল ও সংগঠনের নেতা-কর্মীদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষের সময় প্রচণ্ড লাঠিপেটা করে পুলিশ।

জলকামান আর কাঁদানে গ্যাসের শেলে আহত হয়েছেন ১৫০ জন নেতা-কর্মী।

কলকাতার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাঁদের। পুলিশি নির্যাতনের প্রতিবাদেই সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ১২ ঘণ্টার ওই হরতালের ডাক দেওয়া হয়েছে।

হরতালকে সমর্থন জানিয়েছে জাতীয় কংগ্রেসসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল। আরও সমর্থন জানিয়েছে ফুরফুরা শরিফের পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকির গড়া নতুন দল ইন্ডিয়ান সেক্যুলার ফ্রন্ট বা আইএসএফ।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন