মোদি বলেন, ২ মে আসতে আর ১৫ দিন বাকি। তারপরই দিদির বিদায়ের পালা। বিজেপির সরকার গড়ার পালা। এই বাংলায় বিজেপি দিদিকে হটিয়ে গড়বে নতুন সরকার। ডাবল ইঞ্জিন সরকার। দিল্লি এবং কলকাতার এই একই দলের ডাবল ইঞ্জিন সরকার মিলে এই বাংলাকে গড়ে তুলবে সোনার বাংলা হিসেবে। কলকাতা হবে ভারতের সাংস্কৃতির রাজধানী।

মমতার সরকাররে বিরুদ্ধে সীমাহীন দুর্নীতির অভিযোগ তুলে মোদি বলেন, বাংলা থেকে ২ মে বিদায় নেবে কয়লা আর বালির মাফিয়া রাজ। বন্ধ হয়ে যাবে এই কয়লা-বালির 'ভাইপো ট্যাক্স'। তারপরই এই বাংলা হবে তোলাবাজ, ভ্রস্টাচার, সন্ত্রাসমুক্ত এক সোনার বাংলা। শান্তির বাংলা।

মোদি বলেন, ‘দিদি তো আসানসোলের উন্নয়নের জন্য কোনো কাজ করেননি। করেছে ভাইপোর নিজের স্বার্থের কাজ। তাই আজ দিদির কুশাসনে আসানসোল বেহাল হয়ে পড়েছে। এবার সময় এসেছে আসানসোলকে গড়ে তোলার।’

মোদি ক্ষেভের সঙ্গে বলেন, ‘দিদি আপনি তো ভোটব্যাংকের রাজনীতি করে গেছেন। আপনার চোখে এখন শুধু অহংকারের পর্দা ছেয়ে আছে। এবার সেই পর্দাকে সরাবে বিজেপি। বন্ধ করবে আপনার প্রতিশোধ আর প্রতিরোধের রাজনীতি। কারণ, দিদি আপনি তো নিজেকে সংবিধানের চেয়ে বড় মনে করেন। এবার আপনার সেই দিন শেষ। দিদি কেন্দ্রের সহযোগিতাকে কখনো দাম দেননি। এবার বাংলার মানুষ সেই দাম দিয়ে বাংলাকে সাজাবে, সোনার বাংলা গড়বে।’

মোদি বলেন, ‘এবার জাল ভোট দিতে না পেরে দিদি মেজাজ হারাচ্ছেন। দিদি আপনি যত ষড়যন্ত্র করুন না কেন বাংলার মানুষ মনস্থির করে ফেলেছে, এবার বিজেপি, আপনাকে নয়।’

আসানসোলের জনসভায় যোগ দেওয়ার পর মোদির বিকেলে দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুরে বিজেপি আয়োজিত আরেকটি জনসভায় যোগ দেওয়ার কথা।
এদিকে আজও পশ্চিমবঙ্গে এসেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাস্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি আজ সকালে উত্তর ২৪ পরগনার আমডাঙ্গায় একটি রোড শোতে অংশ নিয়ে বলেন, দিদির সময় শেষ। আসছে এবার এই বাংলায় বিজেপি ক্ষমতায়। দুই শর বেশি আসনে জয়ী হয়ে এই বাংলায় সরকার গড়বে বিজেপি।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন