'আজাদি' স্লোগান দিলে 'দেশদ্রোহী' হিসেবে গণ্য হবে: যোগী

বিজ্ঞাপন
default-image

নাগরিকত্ব সংশোধন আইনের (সিএএ) বিরুদ্ধে যাঁরা প্রতিবাদ করছেন, তাঁদের শাসিয়েছেন ভারতের উত্তর প্রদেশের বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। এনডিটিভি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

আদিত্যনাথ বলেছেন, এই ধরনের প্রতিবাদে যাঁরা ‘আজাদি’ স্লোগান দেবেন, তাঁদের ‘দেশদ্রোহী’ হিসেবে গণ্য করে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গতকাল বুধবার কানপুরে বিজেপির এক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে সিএএ-বিরোধী প্রতিবাদকারীদের উদ্দেশে এই হুঁশিয়ারি দেন আদিত্যনাথ। সিএএর পক্ষে প্রচার চালাতে বিজেপি এই প্রচারাভিযানের আয়োজন করে।

আদিত্যনাথ বলেন, ‘প্রতিবাদের নামে কেউ যদি আজাদি স্লোগান দেন, তবে তা দেশদ্রোহিতা হিসেবে গণ্য হবে। এবং এ ব্যাপারে সরকার কঠোর ব্যবস্থা নেবে। এমন কিছু মেনে নেওয়া হবে না। ভারতের মাটিতে বসে কাউকে ভারতের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করতে দেওয়া হবে না।’

গত বছরের ১১ ডিসেম্বর লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধন বিল পাস হয়। রাজ্যসভায় পাস হয় তার পরের দিন। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ দ্রুত বিলটিতে সই করলে তা আইনে পরিণত হয়। ১০ জানুয়ারি বিজেপি সরকার সিএএ কার্যকর করে। সিএএর বিরুদ্ধে ভারতজুড়ে আন্দোলন চলছে। আন্দোলনে ভারতে ইতিমধ্যে অন্তত ২৫ জন নিহত হয়েছেন। আহত শত শত।

আদিত্যনাথের রাজ্য উত্তর প্রদেশও সিএএর বিরুদ্ধে ব্যাপক প্রতিবাদ-বিক্ষোভ দেখছে। তবে সিএএ-বিরোধীদের ব্যাপারে শুরু থেকেই আদিত্যনাথ সরকারের অবস্থান বেশ কঠোর। তাঁর সরকার সিএএ-বিরোধীদের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে নানা কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে। এ নিয়ে কঠোর সমালোচনা হচ্ছে।

গতকাল কানপুরে আদিত্যনাথ বলেন, কংগ্রেস, সমাজবাদী পার্টি ও বাম দল সিএএ ইস্যু নিয়ে রাজনীতি করছে। একে তিনি লজ্জাজনক বলে অভিহিত করেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন