আফগান সরকার ও তালেবানের বৈঠক তেহরানে

দুই দশক ধরে চলা আফগান যুদ্ধের ইতি টানছে যুক্তরাষ্ট্র। আফগানিস্তান ছাড়তে শুরু করেছেন বিদেশি সেনারা।
ফাইল ছবি: এএফপি

আফগান সরকারের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে তালেবানের প্রতিনিধিরা গতকাল বুধবার তেহরানে এক বৈঠকে বসেছেন। ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

তেহরানের ওই আলোচনার সূচনা করে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভাদ জারিফ আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের বিষয়টিকে স্বাগত জানান। তবে তিনি সতর্ক করে বলেন, এখন আফগান জনগণ ও দেশটির রাজনৈতিক নেতাদের দেশটির ভবিষ্যৎ নিয়ে কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, আলোচনায় তালেবানের প্রতিনিধি হিসেবে রয়েছেন শের মোহাম্মদ আব্বাস স্টানিকজাই ও আফগান সরকারের পক্ষে রয়েছেন সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট ইউনুস কানুনি।

গত মঙ্গলবার আফগান কর্তৃপক্ষ ঘোষণা দেয়, মার্কিন সেনারা চলে যাওয়ার পর তালেবানের দখল করা সব জেলা তারা পুনরুদ্ধার করবে।

গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে অনেকটা চুপিসারে ঘাঁটি ছাড়ে মার্কিন সেনারা। ফলে আফগানিস্তানের আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা অরক্ষিত হয়েছে পড়েছে। এটা আফগান সরকারের ক্ষমতার খুঁটি নড়বড়ে করে দিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র যখন দীর্ঘস্থায়ী যুদ্ধের ইতি টেনে সব সেনাকে নিজ দেশে ফিরিয়ে নিচ্ছে, ঠিক তখনই সংঘাত ছড়িয়ে পড়েছে আফগানিস্তানজুড়ে। যুদ্ধবিরতির কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। তালেবান যোদ্ধারা পুরোপুরি সামরিক বিজয়ের দিকে মনোনিবেশ করেছে এবং প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনিকে হটানোর চেষ্টা চালাচ্ছে।

এ যোদ্ধারা কিছুদিন ধরেই কাবুলের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। নতুন করে বেশ কিছু জেলাও দখলের দাবি করেছে তালেবান। তবে দেশটির প্রধান প্রধান শহর এখনো আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর দখলে।