এর আগে কুর্দিস্তান অঞ্চলের সন্ত্রাসবিরোধী কর্তৃপক্ষের বিবৃতিতে বলা হয়, গতকাল ছয়টি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়েছে। নিনভেহ প্রদেশ থেকে ক্ষেপণাস্ত্রগুলো ছোড়া হয় এবং তা কেএআর তেল শোধনাগার কেন্দ্রের কাছে এসে পড়ে। তবে এ ঘটনায় কোনো ক্ষয়ক্ষতি কিংবা কেউ হতাহত হয়েছে কি না, তা উল্লেখ করা হয়নি বিবৃতিতে।

হামলার নিন্দা জানিয়েছেন ইরাকি প্রধানমন্ত্রী মুস্তফা আল-কাদিমি। কুর্দি নেতা মাসুদ বারজানির সঙ্গে এক ফোনালাপে তিনি বলেছেন, সশস্ত্র বাহিনী অপরাধীদের খুঁজে বের করবে।

গত ৬ এপ্রিল ওই একই তেল শোধনাগারের কাছে তিনটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়। এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। কুর্দিস্তানের আঞ্চলিক সরকারের সূত্র রয়টার্সকে বলেছে, ইরাকি কুর্দিশ ব্যবসায়ী এবং জ্বালানি কোম্পানি কেএআর গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বাজ করিম বারজানজিওই তেল শোধনাগারের মালিক।

গত মার্চ মাসেও ইরাকের ইরবিলে বেশ কিছু ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়েছিল। যুক্তরাষ্ট্র ও এর মিত্রদের লক্ষ্য করে এ হামলা হয়েছে বলে ধারণা করা হয়ে থাকে। তবে ওই হামলায় শুধু একজন ব্যক্তি আহত হয়েছেন।

মধ্যপ্রাচ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন