default-image

সরকারি চাকরিজীবীদের বিক্ষোভে কাঁদানে গ্যাস পরীক্ষামূলকভাবে নিক্ষেপ করা হয়েছে, এমন মন্তব্য করে নিন্দার মধ্যে পড়েছেন পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রাশিদ আহমেদ। দেশটিতে বেতন-ভাতা বৃদ্ধির দাবিতে সরকারি চাকরিজীবীরা দাবি জানিয়ে আসছেন। গত বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) তাঁদের এক কর্মসূচিতে কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করেছিল পুলিশ। ওই ঘটনাকেই এভাবে ব্যাখ্যা করেন রাশিদ।

ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়, গতকাল রোববার রাওয়ালপিন্ডিতে এক অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ওই ঘটনার বিষয়ে বলেন, পুলিশ অল্প কিছু কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করেছিল। এটি প্রয়োজনীয় ছিল। কারণ, এগুলো মজুতের পর থেকে অনেক দিন ধরে অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে আছে। অল্প কিছু পরীক্ষার জন্য নিক্ষেপ করা হয়েছিল, বেশিসংখ্যক নয়।

রাশিদ আরও বলেন, এই মুহূর্তে আন্দোলনকারীদের দাবি পূরণ করতে হলে কয়েক শ কোটি রুপির প্রয়োজন হবে, যা সরকারি কোষাগার থেকে জোগান দেওয়া সম্ভব নয়। তবে পরে এই দাবি মেনে নেওয়া হবে বলে সরকারের পক্ষ থেকে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়।

এই ঘটনার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের পাশাপাশি বিভিন্ন স্তরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদক্ষেপ নিয়ে সমালোচনা চলছে। পাকিস্তান মুসলিম লীগ (এন) নেতা মোহাম্মাদ জুবাইর বলেন, অন্য কোনো দেশ হলে তৎক্ষণাৎ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীকে পদচ্যুত করা হতো এবং সরকারের পক্ষ থেকে ক্ষমা প্রার্থনা করা হতো।

বিজ্ঞাপন

চলচ্চিত্রকার হারোন রিয়াজ টুইটারে লেখেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রাশিদ একজন অপদার্থ ও ফ্যাসিবাদী, তাঁর কাছে মানুষের মৃত্যু পরিস্থিতি কৌতুকের বিষয়। আরেকজন টুইটার ব্যবহারকারী লেখেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এই নির্লজ্জতা ব্যাখ্যা করার ভাষা নেই। তিনি শুধু স্বপদে বহালই থাকবেন না, বরং বুক চিতিয়ে এই বিবৃতিতে অনড় থাকবেন।

সামআ টিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই দিন কমপক্ষে দুই হাজার লোক জড়ো হয়েছিলেন। তাঁদের উদ্দেশ্য ছিল পার্লামেন্ট ভবনের উদ্দেশ্য পদযাত্রা করা। পুলিশ তাঁদের থামাতে ওই কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করেছিল।

সরকারি চাকরিজীবীদের এই কর্মসূচিতে সমর্থন জানিয়েছেন পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) চেয়ারপারসন বিলাওয়াল ভুট্টো ও পাকিস্তান মুসলিম লিগ (এন)–এর ভাইস প্রেসিডেন্ট মরিয়ম নওয়াজ। মরিয়ম পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের মেয়ে।

এক টুইট বার্তায় মরিয়ম সরকারের এই আচরণকে নির্দয় আখ্যা দিয়ে তা বন্ধের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘সৃষ্টিকর্তার দোহাই লাগে, এই নির্দয় নির্যাতন বন্ধ করুন...নির্দোষ সরকারি চাকরিজীবীদের কাঁদানে গ্যাস, শেল নিক্ষেপ ও লাঠিপেটা করে কষ্ট দেবেন না। তাঁরা শক্র নন। তাঁরা গরিব পাকিস্তানি, যাঁরা নিজেদের অধিকার দাবি করছেন।’

পাকিস্তান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন