পাকিস্তানে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আট সেনা নিহত

সন্ত্রাসীদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত সেনাসদস্যদের শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া
ছবি: টুইটার

পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশে পৃথক ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনায় তিন কর্মকর্তাসহ আট সেনাসদস্য নিহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার এসব বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। বন্দুকযুদ্ধের সময় সেনাসদস্যদের গুলিতে সাত সন্ত্রাসীও নিহত হয়েছেন। পাকিস্তানের সামরিক বাহিনী একটি বিবৃতি দিয়ে এসব তথ্য জানিয়েছে।

পাকিস্তান আন্তবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দক্ষিণ ওয়াজিরিস্তান জেলার মাকিনে শহরে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে সেনাদের বন্দুকযুদ্ধে চার সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। তবে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধের সময় গুলিতে ক্যাপ্টেন সাদ বিন আমির (২৫) ও ল্যান্সনায়েক রিয়াজ (৩৭) নিহত হন।

এ ছাড়া টঙ্ক জেলায় সন্ত্রাসীদের সঙ্গে আরও একটি বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। সেখানে তিন সন্ত্রাসী একটি সামরিক স্থাপনায় ঢোকার চেষ্টা করলে পাকিস্তানি সেনারা পাল্টা প্রতিরোধ গড়ে তিন সন্ত্রাসীকে হত্যা করে। ব্যাপক গোলাগুলির মধ্যে ছয় সেনাসদস্যও নিহত হন বলে আইএসপিআরের বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।

টঙ্কে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত সেনাদের মধ্যে রয়েছেন সুবেদার মেজর শের মোহাম্মদ (৪৮), নায়েব সুবেদার জুবাইদ (৩৯), হাবিলদার সোহেল (৩৯), ল্যান্সনায়েক গোলাম আলী (৩৬), সিপাহি মাসকিন আলী (৩২) ও সিপাহি মীর মোহাম্মদ (৩৭)।আইএসপিআর বলেছে, পাকিস্তান সেনাবাহিনী সন্ত্রাস নির্মূল করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ এবং সাহসী সৈন্যদের এ আত্মত্যাগ তাঁদের সংকল্পকে আরও শক্তিশালী করে।

বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদন অনুযায়ী, তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তান (টিটিপি) নামের একটি গোষ্ঠী টঙ্কে সেনাদের ওপর এ হামলার দায় স্বীকার করেছে।