শাহবাজ শরিফের ঘোষণাকে ‘নোংরা পদক্ষেপ’ আখ্যা দিয়ে পিটিআই নেতা ফাওয়াদ চৌধুরি বলেছেন, বিষয়টি তদন্তে পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্টের একটি স্বাধীন কমিশন গঠন করা উচিত। তদন্ত কমিশনের প্রধান এমন কাউকে করা যেতে পারে যাঁকে নিয়ে কোনো আপত্তি থাকবে না।

গত শনিবার দিবাগত রাতে পাকিস্তানের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ জাতীয় পরিষদে অনাস্থা ভোটে হেরে প্রধানমন্ত্রীর পদ হারিয়েছেন ইমরান খান। এই সরকার পতনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ষড়যন্ত্র রয়েছে বলে অভিযোগ ইমরান ও তাঁর দলের। গত ৮ মার্চ বিরোধীরা পার্লামেন্টে অনাস্থা প্রস্তাব আনার পর থেকেই এ বিষয়ে বলে আসছেন ক্রিকেটতারকা থেকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসা ইমরান খান।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে ওয়াশিংটনের সঙ্গে সুর না মেলানোয় ইমরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্র ক্ষুব্ধ হয়েছে বলে বলা হচ্ছে। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে হামলা শুরু করে রাশিয়া। ওই দিনই মস্কো সফরে গিয়েছিলেন ইমরান খান। রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে বৈঠকও করেছিলেন তিনি। এই সফরে কেন গেলেন, যুক্তরাষ্ট্র সেই প্রশ্ন তুলেছে বলে জানিয়েছিলেন ইমরান। এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের একজন কর্মকর্তা ওয়াশিংটনে নিয়োজিত পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে ইমরান খানের বিষয়ে তাঁর সরকারের নেতিবাচক মনোভাবের কথা জানিয়েছিলেন বলে একটি তারবার্তায় এসেছে বলে ইমরানের অভিযোগ।

ওই তারবার্তায় পাকিস্তানকে যুক্তরাষ্ট্রের ‘হুমকি’ দেওয়ার বিষয়টি উঠে এসেছে বলে গত ২৭ মার্চ এক জনসমাবেশে উল্লেখ করেন ইমরান। জাতীয় পরিষদে অনাস্থা প্রস্তাব আনার পেছনে ওই হুমকির সংশ্লিষ্টতা রয়েছে বলে দাবি করেন ইমরান ও তাঁর দল।

সোমবার বিকেলে জাতীয় পরিষদে নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের অধিবেশন বর্জন করেন ইমরানের দল পিটিআইয়ের নেতারা। জাতীয় পরিষদ থেকেও পিটিআইয়ের আইনপ্রণেতাদের পদত্যাগের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে পিটিআইয়ের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক ফাররুখ হাবিব এক টুইটে বলেন, আমদানি করা সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ হিসেবে জাতীয় পরিষদ থেকে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলের পার্লামেন্টারি পার্টি।

এরপর বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পাকিস্তানের ২৩তম প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন শাহবাজ শরিফ। পার্লামেন্টেই কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা দেন তিনি। শাহবাজ বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের ষড়যন্ত্র’ নিয়ে তিনি জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক পার্লামেন্টারি কমিটির একটি প্রকাশ্য শুনানি করবেন। সেখানে ‘ষড়যন্ত্রের’ সত্যতার বিষয়টি নির্ধারণ করা হবে।