default-image

পাকিস্তানে নিষিদ্ধ তেহরিক-ই-লাব্বাইক পাকিস্তানের (টিএলপি) বিক্ষোভরত কর্মীদের বিরুদ্ধে লাহোরে অভিযান চালিয়েছে দেশটির পুলিশ। আজ রোববার এই অভিযানকালে সংঘাত-সহিংসতায় অন্তত তিনজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অনেক। আহত ব্যক্তিদের মধ্যে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরাও রয়েছেন। দ্য ডন অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

খবরে বলা হয়, ইসলামি দল টিএলপিকে সম্প্রতি নিষিদ্ধ করে পাকিস্তান সরকার। দলটির বেশ কিছু কর্মী লাহোরের একটি এলাকায় অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ দেখিয়ে আসছিলেন। বিক্ষোভের স্থান থেকে টিএলপির কর্মীদের উঠিয়ে দিতে আজ অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় সংঘাত-সহিংসতায় হতাহতের ঘটনা ঘটে।

টিএলপির মুখপাত্র শফিক আমিনী এক ভিডিও বার্তায় অভিযোগ করেন, স্থানীয় সময় সকাল আটটার দিকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী হঠাৎ তাঁদের কর্মীদের ওপর আক্রমণ করে। এতে তাঁদের কর্মীরা হতাহত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

অভিযান চালানোর কথা নিশ্চিত করেছেন পুলিশের কর্মকর্তারা। তবে তাঁরা এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। তবে অনেকে বলছেন, এই ভিডিও পুরোনো।

এদিকে পাঞ্জাব পুলিশের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে টিএলপি। টিএলপির কর্মীরা রোববার এই পুলিশ কর্মকর্তাকে অপহরণ করেছেন বলে বলা হচ্ছে।

পাকিস্তানে ফ্রান্সবিরোধী সহিংস বিক্ষোভের জেরে টিএলপিকে সম্প্রতি নিষিদ্ধ করে দেশটির সরকার। ওই সহিংসতার ঘটনায় পুলিশের একাধিক সদস্য নিহত হন। আহত হন অনেকে।

গত সোমবার লাহোর থেকে টিএলপি-প্রধান আল্লামা সাদ হুসাইন রিজভিকে গ্রেপ্তারের পরই সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে।

পাকিস্তান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন