default-image

পাকিস্তানের করাচির ফ্রেয়ার হলে ১৬ বছর পর সংস্কারকাজ শুরু হয়েছে। জিও টিভির খবরে জানা যায়, করাচি মেট্রোপলিটন করপোরেশন এ তথ্য জানিয়েছে। করাচি মেট্রোপলিটন পুলিশের পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগ ২০০৪ সালে ফ্রেয়ার হলের সংস্কারকাজের জন্য অনুমোদন দেয়।  

সংস্কারকাজের উদ্বোধন শেষে করাচির প্রশাসক ও কমিশনার ইফতিখার সালওয়ানি বলেন, ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে এ কাজ শেষ হবে।

বিজ্ঞাপন

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে করাচির অতিরিক্ত কমিশনার ওয়াকাস রোশন, পার্কস মহাপরিচালক তাহা সালিম, খেলা ও সংস্কৃতিবিষয়ক জ্যেষ্ঠ পরিচালক খুরশিদ শাহ ও অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

করাচির কমিশনার ইফতিখার শালওয়ানি বলেন, ঐতিহ্য সংরক্ষণের রীতি অনুসারে সংস্কারকাজে পরামর্শক হিসেবে কাজ করবেন প্রত্নতাত্ত্বিক ও ইতিহাসবিদ কলিমুল্লাহ লাশারি। তিনি বলেন, ফ্রেয়ার হল ঐতিহাসিক স্থান। আগে এটি বন্ধ ছিল। তবে এখন সর্বসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে। ফ্রেয়ার হলে গ্রন্থাগারের কাজ সংস্কার করা হয়েছে। সেখানে সিএসএস কর্নার তৈরি করা হয়েছে।

করাচির প্রশাসক আশ্বস্ত করে বলেন, ফ্রেয়ার হলে আবার জনসমাগম হবে। তিনি আরও বলেন, কেএমসি ঐতিহাসিক সব স্থাপনাগুলো সংস্কার করে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনার পরিকল্পনা করেছে। ফ্রেয়ার হলে কী ধরনের সংস্কারকাজ হয়েছে, তা উপস্থাপন করা হবে বলেও জানিয়েছে কেএমসি।

প্রথমে করাচির টাউন হল হিসেবে ফ্রেয়ার হলকে ব্যবহার করার উদ্দেশ্য ছিল। তবে পরে এখানে বিভিন্ন প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। এটিকে গ্রন্থাগারের কাজে ব্যবহার করা হয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন