default-image

আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট আলবার্তো ফার্নান্দেজকে বহনকারী একটি মিনিবাসে হামলা চালিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের চুবাত প্রদেশের পাতাগোনিয়া অঞ্চলে একটি কমিউনিটি সেন্টারের বাইরে এ ঘটনা ঘটে।

আজ রোববার বিবিসির খবরে বলা হয়, দাবানলে ক্ষতিগ্রস্ত একটি এলাকা পরিদর্শনে গিয়েছিলেন আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট। ওই দাবানলে একজন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হন। তবে চুবাত প্রদেশে খনি প্রকল্প আবার চালু করার সরকারি পরিকল্পনার প্রতিবাদে ওই বিক্ষোভ হয়। বিক্ষোভকারীরা প্রেসিডেন্টকে বহনকারী মিনিবাস ঘিরে পাথর ছুড়ে মারে। এতে মিনিবাসটির জানালার কাচ ভেঙে যায়। মিনিবাসটির গতিরোধ করার চেষ্টা করে বিক্ষোভকারীরা।

বিজ্ঞাপন

আর্জেন্টিনার ক্লার্ন নামে একটি পত্রিকা জানিয়েছে, স্বর্ণ, রুপা ও ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ ওই এলাকায় বড় প্রকল্পগুলো চালুর অনুমতি দিতে সরকারি প্রস্তাবের প্রতিবাদে বিক্ষোভকারীরা বিক্ষোভ করছে। হামলার বিভিন্ন ফুটেজে কমিউনিটি সেন্টারের প্রবেশপথে ভিড় দেখা যায়।

কমিউনিটি সেন্টার থেকে বেরিয়ে মিনিবাসে ওঠার সময় বিক্ষোভকারীরা প্রেসিডেন্টের পিছু নেয়। এরপর মিনিবাসে লাথি ও ঘুষি মারতে থাকে। জানালায় পাথর ছুড়তে থাকে। বিক্ষোভকারীরা মিনিবাসটি থামাতে চেষ্টা করে। মিনিবাসটি চলে যাওয়ার সময় বেশ কয়েকটি জানালার কাচ ভাঙা ছিল।

সম্প্রতি পাতাগোনিয়া অঞ্চলে বেশ কয়েকটি দাবানল হয়েছে। দাবানলে কমপক্ষে ২০০ ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। এলাকা থেকে মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। দাবানলের কারণে বেশ কয়েকটি এলাকার বিদ্যুৎ–সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। অনেক এলাকায় পানি সরবরাহ নেই।

দাবানলের কারণ এখনো জানা যায়নি। আর্জেন্টিনার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, তারা মনে করে পরিকল্পিতভাবে এ রকম ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
দক্ষিণ আমেরিকা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন