বিজ্ঞাপন

ইকুয়েডরের পরিবেশ মন্ত্রণালয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কিছু ছবি পোস্ট করেছে। সেখানে দেখা যায়, আর্চের ওপরের বাঁকা অংশটুকু ধসে পড়েছে। নিচে পড়ে আছে পাথরের স্তূপ। তবে দুই পাশের স্তম্ভগুলো দাঁড়িয়ে আছে।

মন্ত্রণালয় তাদের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে জানিয়েছে, প্রাকৃতিক কারণেই ডারউইনস আর্চ ধসে পড়েছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়, ব্রিটিশ প্রকৃতিবিদ চার্লস ডারউইনের নামে এই আর্চের নামকরণ করা হয়। মূল ভূখণ্ড থেকে প্রায় ৯৬৫ কিমি পশ্চিমে প্রশান্ত মহাসাগরে অবস্থিত গ্যালাপাগোস দ্বীপপুঞ্জ ইকুয়েডরের সীমানাভুক্ত। বলা হয়, ডারউইন দ্বীপের মূল ভূখণ্ড থেকে এক কিলোমিটারের কম দূরত্বে অবস্থিত এই আকর্ষণীয় প্রাকৃতিক স্থাপনা।

গ্যালাপাগোস দ্বীপপুঞ্জটি ইউনেসকোর বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকাভুক্ত। এই দ্বীপপুঞ্জ ২৩৪টি দ্বীপ নিয়ে গঠিত। এর মধ্যে মাত্র চারটিতে ৩০ হাজার মানুষ থাকে। এই দ্বীপপুঞ্জের অপরূপ জীববৈচিত্র্যের টানে ছুটে আসতেন পর্যটকেরা।

দক্ষিণ আমেরিকা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন