মজুরি বৈষম্য ও পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে তিনজন নিহত হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে পেরুর রাস্তায় কৃষকেরা
মজুরি বৈষম্য ও পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে তিনজন নিহত হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে পেরুর রাস্তায় কৃষকেরা ছবি: এএফপি

পেরুতে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে তিনজন নিহত হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে গত বৃহস্পতিবার দেশটির উত্তরাঞ্চলে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ করেছেন শত শত কৃষক। সেই সঙ্গে মজুরি বাড়ানোর দাবি জানান তাঁরা। খবর এএফপির।

কর্তৃপক্ষ বলেছে, গত বুধবার পুলিশের সঙ্গে ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় তিন ব্যক্তি নিহত হন। তাদের মধ্যে এক কিশোরও রয়েছে। ওই দিন সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালনকালে বিক্ষোভকারীদের একজনকে পুলিশ ধরে নিয়ে যায়। পরে হাসপাতালে মারা যান তিনি।

পেরুর আইনসভায় গত মঙ্গলবার একটি বিল পাস হয়। এই বিল নিয়ে ক্ষুব্ধ হয়েছেন দেশটির কৃষকেরা। বিক্ষোভকারীরা বলেন, কৃষিজাতপণ্য রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে তাঁরা তাঁদের দৈনিক মজুরি ১১ ডলার থেকে ১৮ ডলার করার দাবি জানাচ্ছেন। কিন্তু ওই বিলে মজুরি বাড়িয়ে প্রায় ১৩ ডলার করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

পুলিশের সঙ্গে সে দিনের সংঘর্ষে ২৮ বিক্ষোভকারী আহত হন। আহত হন ১৫ পুলিশ সদস্যও। সংঘর্ষের ঘটনায় মোট ৪৫ জন কৃষক গ্রেপ্তার হয়েছেন। মজুরি বৃদ্ধিসহ নানা দাবিতে গত মাসের শুরু থেকে রাজধানী লিমার প্রায় ৫০০ কিলোমিটার উত্তরে একটি সড়কের অংশবিশেষ অবরুদ্ধ করে বিক্ষোভ দেখান কৃষকেরা।

বিজ্ঞাপন

টেলিভিশনে সম্প্রচার করা ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, বিক্ষোভকারীদের হটাতে কাঁদানে গ্যাসের শেল ও গুলি ছুড়ছে পুলিশ।

পেরুর আইনসভায় গত মঙ্গলবার একটি বিল পাস হয়। এই বিল নিয়ে ক্ষুব্ধ হয়েছেন দেশটির কৃষকেরা। বিক্ষোভকারীরা বলেন, কৃষিজাতপণ্য রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে তাঁরা তাঁদের দৈনিক মজুরি ১১ ডলার থেকে ১৮ ডলার করার দাবি জানাচ্ছেন। কিন্তু ওই বিলে মজুরি বাড়িয়ে প্রায় ১৩ ডলার করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

কৃষকদের মধ্যে উত্তেজনা কমাতে প্রেসিডেন্ট ফ্রান্সিসকো সাগাস্টি প্রতিশ্রুতি দেন, বিক্ষোভকারীদের ওপর আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহারের নিষেধাজ্ঞা অমান্যকারী পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সংকট সমাধানে তিনি আলোচনা শুরুর প্রস্তাব দিয়েছেন। একই সঙ্গে তিনি স্বীকার করেছেন, কংগ্রেসের পাস করা বিল কোনো পক্ষকেই সন্তুষ্ট করতে পারেনি।

দক্ষিণ আমেরিকা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন