বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র ভিক্টর উরদাপিলেটা বলেছেন, মঙ্গলবার বাগানে নিয়মিত টহল দেওয়ার সময় ভিক্টর ইজাজির ওপর হামলা হয়। তিনি আরও বলেছেন, ওই সময় ভিক্টর ইজাজি হরিণের জন্য সংরক্ষিত স্থানে প্রবেশ করেছিলেন। এ সময় তিনি হাত নাড়ালে হরিণগুলো ক্ষিপ্ত হয়ে তাঁর ওপরে হামলা করে। পুরো ঘটনাটি বাগানের সিসিটিভিতে দেখা গেছে। এরপর তাঁকে সামরিক হাসপাতাল নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্যারাগুয়ের পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের বন্য প্রাণী অধিদপ্তরের পরিচালক ফ্রেডরিক বাউয়ার বলেছেন, হরিণের এই প্রজাতি ভারত থেকে আনা হয়েছিল। প্যারাগুয়ের রাজধানী আসুনসিয়ানে অবস্থিত প্রেসিডেন্ট ভবনে এই হরিণগুলো উপহার হিসেবে দেওয়া হয়েছিল। পদাতিক বাহিনীর একজন মুখপাত্র বলেছেন, হরিণগুলো সাধারণত অন্যান্য বন্য প্রাণীর সঙ্গে আলাদা জায়গায় রাখা হয়েছিল, যেখানে মানুষের সঙ্গে তাদের কদাচিৎ দেখা হয়।

লাতিন আমেরিকা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন