default-image

আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট আলবার্তো ফার্নান্দেজ বলেছেন, মার্কিন টিকা প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ফাইজারের তৈরি করোনার টিকার সাড়ে সাত লাখ ডোজ নেবে তাঁর দেশ।

গতকাল শুক্রবার তিনি বলেন, আগামী ডিসেম্বরে এ টিকা পাওয়ার কথা রয়েছে। দক্ষিণ আমেরিকার দেশটিতে কয়েক মাসের কোয়ারেন্টিন কর্মসূচির কারণে সংক্রমণের হার কমতে শুরু করেছে। এতে নতুন করে করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় আশা দেখছে আর্জেন্টিনা।

বিজ্ঞাপন

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, এ বছরের ডিসেম্বর বা আগামী বছরের জানুয়ারি মাস নাগাদ রাশিয়ার তৈরি পরীক্ষামূলক টিকা স্পুটনিক-৫–এর এক কোটি ডোজ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে আর্জেন্টিনা। এরপরই আবার ফাইজারের টিকা নেওয়ার ঘোষণাও দিল দেশটি।

বিশ্বজুড়ে এখনো কোনো টিকার আনুষ্ঠানিক অনুমোদন দেয়নি নিয়ন্ত্রকেরা। তবে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে কয়েকটি টিকার বড় আকারের পরীক্ষা চলেছে। চলতি মাসেই বা আগামী মাসে কয়েকটি টিকার ফলাফল জানার আশা করা যাচ্ছে। এর মধ্যে ফাইজারের টিকাটি এগিয়ে রয়েছে।
আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট বলেছেন, তাঁর দেশ অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি টিকাটি নেওয়ার আশাও করছে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের মারাত্মক শিকার হওয়া দেশগুলোর একটি আর্জেন্টিনা। দেশটিতে ১২ লাখ ২০ হাজারের বেশি মানুষের করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। মারা গেছেন ৩২ হাজার ৭৬৬ জন। তবে আশার কথা হচ্ছে, সেখানে করোনার সংক্রমণ কমতে শুরু করেছে। ধারণা করা হচ্ছে, আর্জেন্টিনায় করোনার শীর্ষ স্তর পার করে ফেলেছে।

মন্তব্য পড়ুন 0