default-image

ন্যাশনাল প্যালেসে মাস্ক ছাড়াই ঘুরে বেড়াতে দেখা গেছে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাদরকে। নিজের কার্যালয় ও বাসভবন ন্যাশনাল প্যালেস থেকে ভিডিও বার্তা দিয়েছেন মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট। সেটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করেছেন।

এএফপির আজ শনিবারের খবরে জানা যায়, ১৩ মিনিটের ওই ভিডিওতে মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট স্যুট, টাই ও ওভারকোট পরেছিলেন। তবে তাঁর মুখে কোনো মাস্ক ছিল না। ন্যাশনাল প্যালেসে তিনি হাঁটছিলেন ও কথা বলছিলেন।

৬৭ বছরের আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাদর বলেন, ‘আমি এখনো করোনাভাইরাসে সংক্রমিত। তবে চিকিৎসকেরা বলেছেন, বিপজ্জনক পরিস্থিতি পার হয়ে গেছে।’ কোনো গুজব যাতে না ছড়ায় সে জন্য ভিডিও বার্তায় এসেছেন বলে জানান তিনি।

ওই ভিডিওতে মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, ‘আমি ভালো আছি। তবে আমাকে বিশ্রাম নিতে হবে।’ আইসোলেশনে থাকার সময়ও কাজ করেছেন বলে জানান ওব্রাদর। তিনি বলেন, মেক্সিকোতে আরও টিকার সরবরাহ তিনি নিশ্চিত করতে চান।
মেক্সিকোতে করোনায় সংক্রমিত হয়ে ১ লাখ ৫৬ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

গত ২৪ ডিসেম্বর থেকে মেক্সিকোতে করোনাভাইরাসের টিকাদান শুরু হয়েছে। লোপেজ ওব্রাদর বলেন, আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে তিনি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে ছয় লাখ টিকা পাবেন বলে আশা করছেন।

মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট হৃদরোগ ও হাইপারটেনশনে ভুগছেন। করোনায় সংক্রমিত হওয়ার পর তাঁর চিকিৎসা চলছে। তাঁর মৃদু উপসর্গ রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জইর বলসোনারো, যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ও ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাখোঁও করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হন। তাঁরা সবাই এখন সুস্থ।

মেক্সিকোর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় গত বুধবার জানায় লোপেজ ওব্রাদরের হালকা জ্বর ও মাথাব্যথা ছিল। মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট মাস্ক পরার বিরোধী। সমালোচকেরা বলছেন, লকডাউন দেরিতে শুরু করায় মেক্সিকোতে করোনাভাইরাস বেশি ছড়িয়েছে।

দক্ষিণ আমেরিকা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন