ভেনেজুয়েলায় ফের রাশিয়ার সামরিক বিমান

বিজ্ঞাপন
default-image

রুশ বিমানবাহিনীর একটি সামরিক বিমান গতকাল সোমবার ভেনেজুয়েলার প্রধান বিমানবন্দরে অবতরণ করেছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এবং বিমান চলাচল অনুসরণকারী একটি ওয়েবসাইট এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছে। মাস তিনেক আগে একইভাবে একটি বিমান অবতরণের ঘটনা ওয়াশিংটন ও মস্কোর মধ্যে বিতর্ক সৃষ্টি করে।

গত মার্চ মাসে রাশিয়ার বিমানবাহিনীর আন্তনভ-১২৪ বিমান ও একটি ছোট জেট ভেনেজুয়েলার রাজধানী কারাকাসে অবতরণ করে। উড়োজাহাজগুলোতে করে প্রায় ১০০ জন সেনা ও ৩৫ টনের মতো সরঞ্জাম আনা হয়। ভেনেজুয়েলার চলমান রাজনৈতিক সংকটে এটি ‘অসংযত উসকানি’ হতে পারে বলে আশঙ্কা করেন বিশ্লেষকেরা। এ ধরনের পদক্ষেপে দক্ষিণ আমেরিকার সংগ্রামরত জাতির দুরবস্থার ‘বেপরোয়া মাত্রা বৃদ্ধি’ করায় রাশিয়াকে দুষেছিল যুক্তরাষ্ট্র।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, গতকাল সোমবার ভেনেজুয়েলার মাইকেটিয়া আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পার্ক করা হয় একটি ইলিউশিন ৬২ জেট বিমান। বিমানটির টেইল নম্বর ছিল আরএ-৮৬৪৯৬। এই নম্বর থেকে জানা যায়, এটি রুশ বিমানবাহিনীর জেট বিমান। ফ্লাইটরাডার২৪ নামে একটি ওয়েবসাইট এই টেইল নম্বর থেকে একে মার্চ মাসে আসা সেই একই বিমান বলে শনাক্ত করে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে মার্চ মাসে ভেনেজুয়েলা থেকে সৈন্য প্রত্যাহার করে রাশিয়া। রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অবশ্য দাবি করেছিল, বিমানে করে দেশটিতে কয়েকজন বিশেষজ্ঞকে পাঠানো হয়েছে। অস্ত্র বিক্রি চুক্তিসংক্রান্ত কাজে এসেছিলেন তাঁরা।

ভেনেজুয়েলার তথ্য মন্ত্রণালয় এবং রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

ভেনেজুয়েলার ঘনিষ্ঠ মিত্র রাশিয়া। লাতিন আমেরিকার এই দেশকে কোটি কোটি ডলার ঋণ ও দেশটির তেলশিল্প ও সামরিক শক্তিকে সব সময় সমর্থন দিচ্ছে তারা। ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলা মাদুরোর বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের পদক্ষেপ ও নিষেধাজ্ঞার কঠোর সমালোচনা করে আসছে রাশিয়া।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র ও ভেনেজুয়েলার মধ্যে সম্পর্ক খারাপ হওয়ার পর মস্কো ও ভেনেজুয়েলার মধ্যকার সম্পর্ক আরও শক্তিশালী হয়েছে। গত ডিসেম্বরে ভেনেজুয়েলায় দুটি পরমাণু বোমারু টিইউ-১৬০ বিমান পাঠায় রাশিয়া। মাদুরোর প্রতি সমর্থন ও একই সঙ্গে নিজেদের সামরিক শক্তি প্রকাশের জন্য এ বিমান পাঠায় তারা। ওই বিমান দুটি ব্ল্যাক জ্যাক নামে পরিচিত। এর সঙ্গে রয়েছে একটি এএন-১২৪ পরিবহন বিমান এবং আইএল-৬২ যাত্রীবাহী বিমান।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন