default-image

আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারীরা আবার চিলি ভ্রমণের সুযোগ পাবেন। করোনার কারণে দেওয়া ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে দিয়ে আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারীদের জন্য সীমান্ত খুলে দিয়েছে দেশটি।

চিলিতে করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আট মাস আগে আন্তর্জাতিক পর্যটকদের জন্য ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়।

চিলির প্রেসিডেন্ট সেবাস্তিয়ান পিনেরা বলেছেন, করোনার লকডাউন থেকে চিলিকে বের করে আনার ধাপ অনুযায়ী পরিকল্পনার অংশ হিসেবে সীমান্ত খুলে দেওয়া হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

পিনেরা আরও বলেন, ‘চিলিতে পাঁচ মাস ধরে স্বাস্থ্যব্যবস্থার ক্রমে গড়ে উন্নতি হচ্ছে। এ জন্য সরকার গৃহীত ব্যবস্থা ও চিলিবাসীকে ধন্যবাদ জানাই। এ সময় আমরা চিলিকে খুলে দেওয়ার প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে বিদেশিদের জন্য সীমান্ত খুলে দিচ্ছি।’

এখন থেকে আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারীরা চাইলে রাজধানী সান্তিয়োগোতে আসতে পারবেন। তবে তাঁদের পরীক্ষায় করোনা নেগেটিভ থাকতে হবে এবং অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে তাঁদের দুই সপ্তাহ পর্যন্ত নজরদারিতে সম্মত হতে হবে।’

চিলিতে স্থানীয়ভাবে চলাচলে বিধিনিষেধ জারি থাকবে। রাত্রিকালীন কারফিউ ডিসেম্বরের মাঝামাঝি পর্যন্ত চলবে।

দক্ষিণ আমেরিকার দেশটিতে করোনা সংক্রমণে ১৫ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে এবং ৫ লাখের বেশি মানুষের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে।

মন্তব্য করুন